• শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৪ ১৪২৮

  • || ০৪ রমজান ১৪৪২

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
দেশে করোনায় মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়াল সরবরাহ কম থাকায় চালের দাম বেশি : অর্থমন্ত্রী উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপানোর অপচেষ্টা করেছে বিএনপি: কাদের একদিনে করোনায় ৬৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮ নারায়ণগঞ্জে সহিংসতার ঘটনায় জামায়াত নেতা গ্রেফতার অবকাঠামো নির্মাণকাজ লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে: কাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলমান উন্নয়ন কাজ অব্যাহত রাখুন: তাজুল ইসলাম করোনায় একদিনে রেকর্ড ৮৩ জনের মৃত্যু হামলাকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে: রেলমন্ত্রী বিশ্বে শান্তি নিশ্চিত করাটাই চ্যালেঞ্জ: প্রধানমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় বরিশালে করোনা শনাক্ত ১১৫ বাজেটে স্বাস্থ্য ও কৃষি খাত গুরুত্ব পাবে: অর্থমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় আরো ৭৮ জনের মৃত্যু আ. লীগের নিজস্ব ইতিহাস তৈরির কারখানা নেই: কাদের লকডাউনে কোথাও উন্নয়ন কাজ বন্ধ থাকবে না: পরিকল্পনামন্ত্রী ফেসবুকে ‘উসকানিমূলক’ স্ট্যাটাস: গ্রেফতার হেফাজতের লোকমান আমিনী পুরো বিশ্বেই শান্তির সংস্কৃতি ছড়িয়ে দিতে চায় বাংলাদেশ: মোমেন ১২-১৩ এপ্রিল চলমান লকডাউনের নির্দেশনা জারি থাকবে: সেতুমন্ত্রী করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যু অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা : আইনমন্ত্রী

আবারও অনলাইননির্ভর জীবনযাপন

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৫ এপ্রিল ২০২১  

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ফের লকডাউন শুরু হয়েছে। খুব প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়া মানা।  দ্রুত কাজ সেরে সন্ধ্যার আগেই ঘরে ফেরার শর্তও দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ফলে প্রয়োজনীয় কাজের জন্য নির্ভর করতে হবে অনলাইনের ওপর। কাজেই আবারও শুরু হলো অনলাইন নির্ভর জীবনযাপন।  করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত বছর এই সময়ও দেশে লকডাউন ছিল।  

এরইমধ্যে টেলিকম সেবাকে জরুরি সেবা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে সরকার। টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি নির্দেশনা জারি করেছে।  তাতে বলা হয়েছে, লকডাউন চলাকালীন জরুরি সেবা হিসেবে টেলিযোগাযোগ নেটওয়ার্ক ও সেবা সচল রাখার স্বার্থে টেলিযোগাযোগ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তি ও এসব প্রতিষ্ঠানের গাড়ি দৈনিক এবং নিয়মিত চলাচল, কর্ম সম্পাদনের জরুরি প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।  এ কারণে সব টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তি এবং এসব প্রতিষ্ঠানের গাড়ি প্রয়োজন মতো চলাচলে সহযোগিতা করতে সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানিয়েছে বিটিআরসি। টেলিযোগাযোগ সেবা প্রদানকারীদের নিজ নিজ স্থাপনা বা অফিসে লাইসেন্স, পারমিট, রেজিস্ট্রেশনের কপি, সংরক্ষণ, প্রদর্শন এবং কর্মরত ব্যক্তিদের প্রাতিষ্ঠানিক পরিচয়পত্র বহনের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

লকডাউনে চালু থাকবে ই-কমার্স। ই-কমার্স সেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য লজিস্টিকস (কুরিয়ার প্রতিষ্ঠান) ও ফুড ডেলিভারি সেবা চালু থাকবে। শপিং মলসহ অন্যান্য দোকানপাট বন্ধ থাকবে।  রেস্তোরাঁগুলোর শুধু অনলাইন কিংবা টেকঅ্যাওয়ে (খাবার নিয়ে যাওয়া) সেবা চালু থাকবে। সরকারের জারি করা প্রজ্ঞাপনে ই-কমার্স সেবা চালু রাখার বিষয়টিতে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

দেশের ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো (আইএসপি) লকডাউনে সেবা দিতে পর্যাপ্ত লোকবলের ব্যবস্থা করেছে। জরুরি সেবা ঘোষণা করায় আইএসপিগুলো তাদের গ্রাহককে নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিতে বদ্ধপরিকর করে আইএসপিগুলোর সংগঠন আইএসপিএবি সূত্রে জানা গেছে। আইআইজি (ইন্টারন্যাশনাল গেটওয়ে) ফোরাম সূত্রে জানা গেছে, দেশে পর্যাপ্ত ব্যান্ডউউথের সরবরাহ রয়েছে।  ব্যবহারকারীদের কোনও সমস্যা হবে না বলে জানিয়েছেন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আহমেদ জুনায়েদ।

তিনি বলেন, ‘যখনই লকডাউন হয় বা কোনও জরুরি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়, তখন অর্থনৈতিক ও সামাজিক সব কাজকর্মই কিন্তু চলে ইন্টারনেটের ওপর ভর করে। ফলে আমরা এই বিষয়টিতে সচেতন আছি।’

ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ই-ক্যাব) সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ তমাল স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাইকে অনলাইন ব্যবসা পরিচালনা করার অনুরোধ জানিয়েছেন। গত বছরের মতো এ বছরও ই-ক্যাবের মাধ্যমে দেশের সব অনলাইন ব্যবসা-বাণিজ্যকে সহযোগিতা দেবে।

এদিকে দেশের কম্পিউটার ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) প্রযুক্তি খাতকে জরুরি পরিষেবার অন্তর্ভুক্ত করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধকল্পে শর্ত সাপেক্ষে সার্বিক কার্যাবলী বা চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপকে যথার্থ ও সময়োপযোগী মনে করে। তবে জনগুরুত্বপূর্ণ বিবেচনায় এই নিষেধাজ্ঞা চলাকালে কম্পিউটার হার্ডওয়্যার সরবরাহকারী ও সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে খোলা রাখার জন্য ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, স্বাস্থ্য, আইসিটি বিভাগ, ৮ বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের কাছে আবেদন জানিয়েছে বিসিএস।  

আবেদনে বিসিএস বলেছে, হার্ডওয়্যার সরবরাহকারী এবং সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বা মার্কেটগুলো সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সীমিত আকারে খোলা রাখার প্রস্তাব করে এ সেবাকে জরুরি পরিষেবার অন্তর্ভুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন বিসিএস সভাপতি।

প্রযুক্তি বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান প্রেনিউর ল্যাবের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি আরিফ নিজামী বলেন, ‘লকডাউন ঘোষণার পরে আমরা ওয়ার্ক ফ্রম হোম চালু করেছি।  লকডাউন চলাকালে আমরা এভাবেই অফিস করবো।’

দেশে মটোরোলা মোবাইলের ন্যাশনাল পার্টনার সেলেক্সট্রা লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাকিব আরাফাত বলেন, ‘আমরা ওয়ার্ক ফ্রম হোমের ঘোষণা দিয়েছি। তবে বিকল্প ব্যবস্থাও রেখেছি।  অল্টার করে সবাই অফিস করবে।  ফিল্ড সেলস (মার্কেট বা মোবাইল শপে বিক্রি) বন্ধ থাকবে। তবে আমাদের অনলাইন শপ সেলেক্সট্রা শপ চালু থাকবে। ক্রেতারা ঘরে বসেই গ্যাজেটস অ্যান্ড লাইফ স্টাইল পণ্যের ফরমায়েশ দিতে পারবেন।  ক্রেতাদের জন্য থাকছে বিশেষ আয়োজন। ’

দেশে শাওমি মোবাইল ফোনের অন্যতম ন্যাশনাল ডিস্ট্রিবিউটর সোলার ইলেকট্রো বাংলাদেশ লিমিটেডের (এসইবিএল) প্রধান নির্বাহী দেওয়ান কানন বলেন, লকডাউনে তো মার্কেট শপ বন্ধ থাকবে।  এজন্য আমরা অনলাইনে পণ্য বিক্রির জন্য বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।  ক্রেতারা পণ্যের অর্ডার করলে অন্য সময়ের চেয়ে আরও দ্রুত গতিতে সেবা পাবেন।

কুরিয়ার প্রতিষ্ঠান ই-কুরিয়ারের প্রধান নির্বাহী বিপ্লব ঘোষ রাহুল বলেন,  ‘আমাদের কুরিয়ার সেবা চালু থাকবে।  পণ্য ডেলিভারির চাপ স্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাবে। আমরা সংকটকাল মোকাবিলার জন্য পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেবাদান অব্যাহত রাখবো।’

জানা গেছে, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান চালডাল ডট কম গ্রোসারি অর্ডার করলে ঢাকা শহরে এক ঘণ্টায় পৌঁছে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।  প্রিয়শপ ডট কম দিচ্ছে বিভিন্ন অফার। সাইটিতে এখন চলছে বই মেলা।  প্রিয় লেখকের বই এখন ঘরে বসেই কেনার ব্যবস্থা করেছে প্রতিষ্ঠানটি।  ই-কমার্স মার্কেট প্লেস আজকেরডিলে চলছে বৈশাখি উৎসব, জিন্স ফেস্ট। লকডাউনে ঘরের বাইরে বের না হয়ে ঘরে বসেই নিরাপদে কেনা যাবে বৈশাখের পোশাক।