• রোববার   ১৩ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮

  • || ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
স্কুল-কলেজে ছুটি আবার বাড়ল গণতন্ত্রের মুক্তি দিবস ১১ জুন মডেল মসজিদের মাধ্যমে ইসলামের মর্মবাণী বুঝবে মানুষ ইসলাম আমাদের মানবতার শিক্ষা দিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী খুন করে কি বেহেশতে যাওয়া যায়, প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন ‘লেবাস নয়, ইনসাফের ইসলামে বিশ্বাস করি’ একযোগে ৫০ মডেল মসজিদ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী করোনা থেকে রক্ষা পেতে সকল রাষ্ট্রকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে দক্ষিণাঞ্চলে বেশি করে সাইলো নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী গাইলেন, ‘ওকি গাড়িয়াল ভাই...’ ৬৬৫১ কোটি টাকা ব্যয়ে একনেকে ১০ প্রকল্প অনুমোদন ৬ দফার মাধ্যমেই বাঙালির স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী ছয় দফার প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থনে স্বাধীনতার রূপরেখা রচিত হয় দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৮ মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৭৬ বাঙালির মুক্তির সনদ ৬-দফাঃ শেখ হাসিনা প্রত্যেককে তিনটি করে গাছ লাগানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জাম-আমড়া-সোনালু ও ডুমুরের চারা রোপণ করলেন প্রধানমন্ত্রী ৮৮ ডলার থেকে মাথাপিছু আয় ২২২৭ ডলার জলবায়ু সংকট নিরসনে যুক্তরাজ্য ভূমিকা রাখবে, আশা শেখ হাসিনার একদিনে করোনায় ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৮৮

কেমন আছেন নায়ক ফারুক?

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২১  

আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক)। ঢাকাই সিনেমার বরেণ্য অভিনেতা ও সংসদ সদস্য। দীর্ঘদিন ধরে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। সেখানে তার দেখভাল করছেন স্ত্রী ফারহানা পাঠান। সিঙ্গাপুর থেকে তিনি গণমাধ্যমকে নিয়মিত বরেণ্য এই তারকার শারীরিক অবস্থার খবর জানান।

ফারহানা পাঠান সম্প্রতি বলেন, ‘ফারুকের খুব ধীরগতিতে উন্নতি হচ্ছে। তার রক্তে ইনফেকশন, মস্তিষ্কে সমস্যা রয়েছে। ডাক্তার বলেছেন, এই সমস্যা ঠিক হয়ে যাবে প্রাকৃতিকভাবেই। তবে একটু সময় লাগবে। 

মার্চের ৪ তারিখ থেকে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নিচ্ছেন ফারুক। এরমধ্যে সর্বমোট ১০/১২ দিন তিনি কেবিনে, বাকি দিনগুলোতে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ছিলেন। 

সবার কাছে ফারুকের জন্য দোয়া প্রার্থনা করে ফারহানা পাঠান আরও বলেন, ‘আমি যেন ফারুককে নিয়ে ঢাকায় ফিরতে পারি। তার শারীরিক অবস্থা যেন আরও ভালোর দিকে যায়। সবার কাছে সেই দোয়া চাই।’

প্রসঙ্গত, নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুরে যান ফারুক। পরীক্ষায় তার রক্তে সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপর থেকেই শারীরিকভাবে অসুস্থতা অনুভব করছিলেন তিনি। হাসপাতালে ভর্তির কয়েকদিন পর তার মস্তিষ্কেও সংক্রমণ ধরা পড়ে। এর আগে গত বছরের অক্টোবর মাসের শেষ দিকে চিকিৎসা নিয়ে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরেন ফারুক। তখন থেকেই তিনি সুস্থ ছিলেন। চিকিৎসকেরা আগেই বলে দিয়েছিলেন, বেশকিছু শারীরিক জটিলতা থাকায় ফারুকের শরীর খারাপ হতে পারে। সেজন্য তিনমাস পর পর রুটিন চেকআপ করাতে হবে। 

উল্লেখ্য, চিত্রনায়ক ফারুক ১৯৪৮ সালে ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীরা তাকে ভালোবেসে মিয়া ভাই বলে ডাকেন। যদিও তার পুরোনাম আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। অভিনেতার পাশাপাশি তিনি একাধারে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, ব্যবসায়ী ও সংসদ সদস্য।

১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ঢাকাই সিনেমায় অভিষেক হয় তার। এরপর তিনি পরিণত হন অন্যতম জনপ্রিয় নায়কে। তরুণ বয়স থেকেই তিনি রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন। বর্তমানে ঢাকা-১৭ আসন থেকে নির্বাচিত সাংসদ তিনি।