শনিবার   ২৩ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬   ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
সরকার আলেমদের সঙ্গে নিয়ে দেশের উন্নয়ন করতে চায়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নরসিংদীর এমপি বুবলীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে কাউকে ছাড় নয়: খাদ্যমন্ত্রী ভারত মুক্তিযুদ্ধের সময় পাশে ছিল তা ভুলিনি: প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকদের নৈতিক শিক্ষা খুবই প্রয়োজন: পরিকল্পনামন্ত্রী সামাজিক মাধ্যমে গুজব বন্ধে বিধিমালা হচ্ছে- তথ্যমন্ত্রী শুক্রবারের মধ্যে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে: কাদের ঘণ্টা বাজিয়ে খেলার উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীকে গড়ে তোলা হবে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সশস্ত্র বাহিনীকে কাজ করার আহ্বান সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা ইউনেস্কোর সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
৪৩

ক্রিকেটারদের ধর্মঘট: বিশ্বাস করতে পারছেন না পাপন

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০১৯  

১১ দফা দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন ক্রিকেটাররা। আর এসব দাবি না মানা হলে এখন থেকে ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট কোনো কার্যক্রমে অংশ নেবেন না তারা। কিন্তু তাদের এসব দাবির কথা শুনে হতাশা প্রকাশ করেছেন বিসিবি'র প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। এমনকি ধর্মঘটের কথা বিশ্বাসই করতে পারছেন না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে আলাদাভাবে দাবি উত্থাপন করেন ক্রিকেটাররা। এর প্রেক্ষিতে জরুরি বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) ক্রিকেটারদের দাবির প্রেক্ষিতে পাপন বলেন, 'আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। আমাদের ক্রিকেটাররা এমন কিছু করতে পারে ভাবতেই পারছি না। তাদের সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত সম্পর্ক অনেক গভীর। সবাই সব সমস্যার সমাধানে আমার কাছে আসে। আমি যথাসাধ্য সমাধান করার চেষ্টা করি।

'ক্রিকেটারদের সঙ্গে কিন্তু আমার নিয়মিত যোগাযোগ হয়। আমি তো আছিই, এমনকি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও ওদের যোগযোগের সুযোগ আছে। ফলে ওদের যদি কিছু বলার থাকে আমাকে বলতে পারতো। শ্রীলঙ্কার এক সফর শেষে ওদের বেতন বাড়ানো হয়েছিল। বেশিদিন আগের কথা না। এয়ারপোর্টে তামিম আর মাশরাফি বলল, ক্রিকেটারদের বেতন বাড়িয়ে দিতে। তখন ওরা বেতন পেত আড়াই লাখ কিংবা ৩ লাখ টাকা। ওদের কথা শুনে চার লাখ করে দিলাম। ওদের সঙ্গে আমার সম্পর্ক এমনই। এমন কোনো খেলোয়াড় বলতে পারবে, ওরা আমাদের কিছু চেয়ে পায়নি?'

বিসিবি প্রধান আরও বলেন, 'ওরা দাবির কথা আমাদের না বলে মিডিয়াতে বলল। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে গেল। আইসিসি, এসিসি সবাই আমাকে ফোন করছে। ওরা (ক্রিকেটাররা) প্রথমে প্রেস কনফারেন্স করল। দাবি তুলে ধরল। আমাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা না করেই এটা করল ওরা। এমন এক সময়ে, যখন কিনা জাতীয় দলের ভারত সফর সামনে। ক্রিকেটের উন্নয়নের জন্য বলছে কিন্তু ওরা আমাদের কাছে আসে নাই। ওরা আমাদের ফোনও ধরে না। এগুলো সব পূর্বপরিকল্পিত। ওরা দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে।'

'জিম্বাবুয়ের মতো আইসিসি'র কাছে অভিযোগ দিয়ে আমাদের ক্রিকেটকে বন্ধ করার চেষ্টাও করছে। এর পেছনে বড় ষড়যন্ত্র আছে। আমাদের বিপদে ফেলার জন্য এসব করা হচ্ছে। এটা দেশের বিরুদ্ধে বড় ষড়যন্ত্র। দেশের ক্রিকেটকে নষ্ট করার একটা চেষ্টা চলছে। ভারত সফর বাদ দিলে আইসিসি'র কাছ থেকে চাপ আসবে। আমার ধারণা, ক্রিকেটারদের মধ্যে অনেকে জানেই না ওরা কী করছে। হয়তো কয়েকজন যুক্ত আছে। আমরা তো তাদের জন্য কম করিনি। যে দাবি পূরণ করার জন্য ওরা আমাদের কাছে আসতে পারতো। ওদের দাবি মেনেও নিতাম। কিন্তু ওরা তো আসলোই না।' 

এই বিভাগের আরো খবর