• শুক্রবার   ০৭ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৪ ১৪২৮

  • || ২৪ রমজান ১৪৪২

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
অনলাইনে পরীক্ষা নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আজই ফিরছেন সাকিব-মুস্তাফিজ খালেদা জিয়ার আবেদন পেয়েছি, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে: আইনমন্ত্রী করোনা প্রাণ নিল আরও ৫০ জনের, নতুন শনাক্ত ১৭৪২ ধান-চাল ক্রয়ের জন্য অত্যন্ত যৌক্তিক দাম নির্ধারণ: কৃষিমন্ত্রী শপিংমল খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় আরো ১০ জন গ্রেফতার করোনায় একদিনে আরও ৬১ জনের মৃত্যু জুনায়েদ আল হাবিব আরও ৪ দিনের রিমান্ডে নাশকতার মামলায় ফের ৫ দিনের রিমান্ডে মামুনুল হক জামায়াত-শিবিরের ৮ নেতাকর্মী আটক করোনায় প্রাণ গেল আরও ৬৫ জনের, শনাক্ত ১৭৩৯ ‘লকডাউন’ বাড়লো ১৬ মে পর্যন্ত অর্থবিত্তে বড় হলেও সত্য সংবাদ পরিবেশন হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী জনস্বার্থে মামলার নামে জনমনে ভীতি ছড়াবেন না: হাইকোর্ট মাদারীপুরে নৌ দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ২৬ দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে মৃত ৬৯ যত টাকাই লাগুক, আমরা আরো ভ্যাকসিন নিয়ে আসবো: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর স্ট্রাকচারের কাজ শেষ হয়েছে : কাদের সব কোর্ট খুললে সংক্রমণ বাড়বে: প্রধান বিচারপতি

চতুর্থ দিনের মতো চলছে সর্বাত্মক লকডাউন

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২১  

করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে চতুর্থ দিনের মতো চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। শুরুর তিনদিন কঠোর কড়াকড়ির মধ্যে সীমিত পরিসরে মানুষ ও গাড়ি চলাচল করেছে।

কিন্তু চতুর্থ দিনে অনেকটা ঢিলেঢালার মতো পালন হচ্ছে সর্বাত্মক লকডাউন। যদিও লকডাউন বাস্তবায়নে চেকপোস্ট বসিয়ে নিয়মিত তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

শনিবার সকালে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সড়কের অলিতেগলিতে রিকশা ও অটোরিকশার চালকরা ওত পেতে রয়েছেন। সুযোগ পেলেই নিকটবর্তী স্থানে যাত্রী যাতায়াত করছেন। মূলত পুলিশের চেকপোস্ট এড়িয়ে চালকরা যাত্রীদের আনা-নেয়া করছে।

প্রথম তিনদিন জরুরি সেবা ছাড়া অন্যান্য গাড়ি কম চোখে পড়েছে। কিন্তু সর্বাত্মক লকডাউনের চতুর্থ দিনের সকালে প্রাইভেট গাড়ির যাতায়াত সড়কে উল্লেখযোগ্য। সড়কের অনেক জায়গায় যানজটের দৃশ্য চোখে পড়েছে। 

এদিকে পুলিশ সদস্যরা চেকপোস্টগুলোতে নিয়মিত তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। গাড়ি থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রেখেছে তারা। তবে বেশিরভাগ গাড়ির চালকরা সন্তোষজনক জবাব দিতে পারায় গাড়িগুলোকে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। 

ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন গলিতে নির্দিষ্ট স্থান পর পর বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধক গড়ে তুলেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। তবে অনেক জায়গায় বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধক গড়ে বাজার-হাট হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত চলতি বছরের প্রথম লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। সেই সাতদিনের লকডাউনে জনগণের উদাসীনতা দেখেই ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত দ্বিতীয় দফায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করে সরকার।