শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ২ ১৪২৬   ১৮ সফর ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
৫৬ লাখ টাকার সিগারেটসহ চোরাকারবারি আটক ফটিকছড়িতে ভুক্তভোগীর ভাই সেজে ঘুষখোর ভূমি কর্মকর্তাকে ধরলেন ডিসি আবরার হত্যা নিয়ে রাজনীতি করে কোনো লাভ হবে না: হানিফ নদী দখলের খবর দিলেই মিলবে পুরস্কার মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা নিয়মের বাইরে না যেতে ইউজিসিকে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ফুটবলে বাংলাদেশের সম্ভাবনা দেখছেন ফিফা সভাপতি শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিনে আ. লীগের কর্মসূচি শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিনে ছাত্রলীগের কর্মসূচি ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীকে জার্সি উপহার দিলেন ফিফা সভাপতি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফিফা প্রেসিডেন্টের সৌজন্য সাক্ষাৎ বাউল সম্রাট লালন ফকিরের তিরোধান দিবস আজ একদিন পিছিয়ে আজ হেমন্তের শুরু যে কারণে প্রেমিক বা প্রেমিকা হিসাবে সাংবাদিকরাই সেরা! বাংলাদেশে কাজ করার অনেক জায়গা আছে: ফিফা সভাপতি রাজধানীতে `ফইন্নী গ্রুপের` ৬ সদস্য আটক স্পিকারের সঙ্গে সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ ক্লাসিকোর ভেন্যু পাল্টানোর অনুরোধ লা লিগার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৮ কাউন্সিলর নজরদারিতে যেমন ছিল নবিজির জীবনের শেষ মুহূর্তটি
২৯

পটুয়াখালীতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন ১৭৪ যুবক

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০১৯  

পটুয়াখালীতে মাদক ব্যবসা ছেড়ে আসা ১৭৪ যুবককে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এসপির কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে প্রশিক্ষণটি চালু করেন এসপি মোহাম্মদ মইনুল হাসান।

মুক্তির পক্ষে পটুয়াখালী সমবায় সমিতি ও যুব উন্নয়ন অধিদফতরের মাধ্যমে ১৭৪ যুবককে মৎস্য, গবাদিপশু পালন ও মোবাইল সার্ভিসিং ক্যাটাগরিতে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এতে এক থেকে তিন মাস সময় লাগবে। এক্ষেত্রে সব প্রশিক্ষণার্থীদের যাবতীয় খরচ এসপি বহন করবেন। 

অতিরিক্ত এসপি মাহফুজুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসপি জানান, মাদক সমাজের অভিশাপ। এটি যুব সমাজকে ধ্বংস করে শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্ট করে। তাই পটুয়াখালীকে মাদকমুক্ত করতে বরিশাল রেঞ্চের ডিআইজর নির্দেশে মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের আত্মসমর্পণ ও উৎসাহ যোগাতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

প্রশিক্ষণের উদ্বোধনীতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুব উন্নয়ন অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. আজিজুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত এসপি (সদর সার্কেল) মো. জসিম উদ্দিন, অতিরিক্ত এসপি শেখ বেলাল হোসেন, সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান, গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মো. জাকির হোসেনসহ পুলিশ সদস্যরা। 

প্রশিক্ষণার্থী কিবরিয়া, জামাল, ফয়সাল, নাদিম, সাব্বির জানান, এখন তারা মৎস্য চাষ, গবাদিপশু পালন ও মোবাইল সার্ভিসিং ট্রেনিং নিয়ে নিজ নিজ এলাকায় স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে চান। বন্ধুদের প্ররোচনায় পড়ে ভুল পথে ছিলেন তারা। ভুল পথ থেকে সুপথে ফেরানোকে সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রশিক্ষণারর্থীরা। 

এই বিভাগের আরো খবর