• শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের র‌্যাব-৮ এর অভিযানে মাদারীপুর থেকে জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ছাড়াল ৩০ হাজার মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড পটুয়াখালীতে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিমি. বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টির আশঙ্কা সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পাঁচ হাজার টেকনোলজিস্ট নিয়োগের ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর
৮৯

‘পাকিস্তান, চীনের ছড়ানো বিষাক্ত গ্যাসে দিল্লিদূষণ’

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

ভারতের নয়াদিল্লিতে বিপজ্জনক বায়ুদূষণের জন্য প্রতিবেশী দুই শত্রু দেশ পাকিস্তান ও চীনকে দায়ী করেছেন ক্ষমতাসীন বিজেপির এক নেতা। বিনীত আগরওয়াল সারদা নামের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের ওই নেতা বলেছেন, দিল্লির বায়ু দূষিত করতে ইসলামাবাদ ও বেইজিং বিষাক্ত পদার্থ ছড়িয়ে দিয়েছে। আর সেই কারণেই দিল্লির আকাশ–বাতাস বিষাক্ত হয়ে যাচ্ছে।

সারদাকে উদ্ধৃত করে ভারতের বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের একটি প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

দিল্লি ও এর আশপাশের এলাকাগুলো বায়ুদূষণের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে বিজেপির এই নেতা বলেন, ‘এটা দেখে (বায়ুদূষণ) মনে হচ্ছে যে পাশের কোনো দেশ বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে দিয়েছে। পাকিস্তান ও চীন ভয়ে আতঙ্কিত। তারা আমাদের এখন ভয় পায়।’

সারদা বলেন, নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ ক্ষমতায় আসার পর থেকেই তাঁদের বিরুদ্ধে সব ধরনের কৌশল প্রয়োগ করছে পাকিস্তান। পাকিস্তান এখন হতাশ। তারা কখনোই ভারতের বিরুদ্ধে একটি যুদ্ধেও জেতেনি।

গত ২৭ অক্টোবর দেওয়ালির অনুষ্ঠানের পর রাজধানী নয়াদিল্লি ও এর আশপাশের এলাকাগুলো মারাত্মক বায়ুদূষণের শিকার। এতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ওই এলাকার জনজীবন। গত শুক্রবার থেকে দিল্লিতে জারি রয়েছে জনস্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা। ওই দিন থেকেই বন্ধ এখানকার বিদ্যালয়গুলো। হরিয়ানা, পাঞ্জাবসহ আশপাশের রাজ্যগুলোতে কৃষকদের খড় পোড়ানোর ধোঁয়া দিল্লির বায়ুদূষণের অন্যতম কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালসহ বিভিন্ন পরিবেশ সংস্থা।

তবে খড় পোড়ানোর জন্য দিল্লির বায়ুদূষণ হচ্ছে, কেজরিওয়ালের এমন মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন সারদা। তিনি বলেন, দিল্লির অবস্থার জন্য কৃষক ও কারখানাগুলোকে দায়ী করা উচিত নয়।

এই বিভাগের আরো খবর