বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা ইউনেস্কোর সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা দুদকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ সশস্ত্র বাহিনী নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন- প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আইভোরি কোস্টের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ সশস্ত্র বাহিনী জাতির গর্বের প্রতীক : রাষ্ট্রপতি আজ বিশ্ব টেলিভিশন দিবস সারাদেশের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন লিখতে হবে স্পষ্ট অক্ষরে: হাইকোর্ট আজ সশস্ত্র বাহিনী দিবস শাহজালালে পৌঁছেছে পাকিস্তানের ৮২ টন পেঁয়াজ ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী
৩৬৪

বিশ্বকে ফ্রি ওয়াইফাই দেবে চীন

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০১৮  

চীনের একটি ইন্টারনেট প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বিশ্বব্যাপী বিনামূল্যে ওয়াইফাই সেবা দিতে নতুন এক স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের পরিকল্পনা করেছে। লিঙ্কশিওর নেটওয়ার্ক নামের এ প্রতিষ্ঠানটি ২৭২টি স্যাটেলাইট নিক্ষেপের প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

বিশ্বের টেকনোলজি জায়ান্ট গুগল ও স্পেসএক্সকে টেক্কা দিতে মঙ্গলবার এ প্রকল্প উন্মোচন করা হয়। এসব স্যাটেলাইটের সাহায্যে ২০২৬ সালের মধ্যেই সারা বিশ্বে ফ্রি ওয়াইফাই ইন্টারনেট দেবে চীনা প্রতিষ্ঠানটি। চীনের রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত চায়না ডেইলি বৃহস্পতিবার এ খবর দিয়েছে।

 

বিনামূল্যে ইন্টারনেট মোবাইল সেবা দেয়ার লক্ষ্য নিয়ে ২০১৩ সালে লিঙ্কশিওর নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, আগামী বছর স্যাটেলাইটটি মহাকাশে পাঠাবে তারা। চীনের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ গানসুর জিগুয়ান স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে এটি পাঠানো হবে।

এছাড়াও একই সেন্টার থেকে ২০২০ সালের মধ্যে আরও দশটি স্যাটেলাইট পাঠানোর চিন্তা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। ২০২৬ সালের মধ্যে স্যাটেলাইটের পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ২৭২টি। চায়না ডেইলি জানায়, এ ইন্টারনেট ব্যবহার করতে হলে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানে লগইন করতে হবে। বিশ্বের যে কোনো স্থান থেকে এ সুবিধা নেয়া যাবে।

এমনকি যেসব এলাকায় টেলিকম কোম্পানিগুলো তাদের নেটওয়ার্ক পৌঁছাতে পারেনি সেখানেও এই নেটওয়ার্ক পাওয়া যাবে। লিঙ্কশিওর নেটওয়ার্কের প্রধান নির্বাহী ওয়াং জিংগিয়েন বলেন, এই পরিকল্পনায় আমাদের প্রতিষ্ঠান ৪৩ কোটি ১৪ লাখ মার্কিন ডলার (৩০০ কোটি ইউয়ান) বিনিয়োগ করছে। নারী এ কর্মকর্তা বলেন, ‘ভবিষ্যৎ প্রযুক্তি যুগের কথা চিন্তা করে আমরা এ প্রকল্প হাতে নিয়েছি।

এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সব ধরনের প্রস্তুতি ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়ে গেছে।’ জাতিসংঘের ২০১৭ সালের এক হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী অন্তত ৩৯০ কোটি মানুষ ইন্টারনেট সেবার বাইরে রয়েছে। বর্তমানে বিশ্বের বহু প্রতিষ্ঠান যেমন গুগল, স্পেসএক্স, ওয়ানওয়েব এবং টেলিস্যাট ফ্রি ইন্টারনেট দিতে স্যাটেলাইট প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

এই বিভাগের আরো খবর