বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা ইউনেস্কোর সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা দুদকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ সশস্ত্র বাহিনী নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন- প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আইভোরি কোস্টের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ সশস্ত্র বাহিনী জাতির গর্বের প্রতীক : রাষ্ট্রপতি আজ বিশ্ব টেলিভিশন দিবস সারাদেশের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন লিখতে হবে স্পষ্ট অক্ষরে: হাইকোর্ট আজ সশস্ত্র বাহিনী দিবস শাহজালালে পৌঁছেছে পাকিস্তানের ৮২ টন পেঁয়াজ ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী
৩২৫

শাওমি’র স্মার্টফোনে ফের বিস্ফোরণ

প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০১৮  

এবার রাজধানীতে বিস্ফোরিত হয়েছে শাওমি ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন। চলতি সপ্তাহে বাংলাদেশে শাওমি’র ফোন বিস্ফোরণের দ্বিতীয় ঘটনা এটি।

এর আগে গত শনিবার (০১ ডিসেম্বর) ফেনীতে এক কলেজ ছাত্রের ব্যবহৃত শাওমি ব্র্যান্ডের ফোনটি বিস্ফোরিত হয়। এতে পরের দিন রোববার (০২ ডিসেম্বর) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় শাওমি’র ফোন ব্যবহারকারী স্বপ্নীল মজুমদার (১৭) নামের ঐ কলেজ ছাত্রের। 

ওই ঘটনার চারদিনের মাথায় মঙ্গলবার (০৪ ডিসেম্বর) সকালে ইব্রাহিম খলিল নামের এক ব্যবহারকারী শাওমি ব্র্যান্ডের হ্যান্ডসেট বিস্ফোরণ হওয়ার অভিযোগ করেন। জাহাঙ্গীর আলম সোহাগ নামের এক ফেসবুক আইডি থেকে বিষয়টি নিয়ে একটি পোস্ট দেওয়া হলে সামাজিক মাধ্যমটিতে তা দ্রুত ভাইরাল হয়। 

ফেসবুকের ঐ পোস্টটিতে লেখা হয়, ‘সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি শাওমি ফোন সেট হতে সাবধান। আমাদের সকলের খুব পরিচিত মুখ খলিল ভাই এর মোবাইল ফোনটি আজ সকালে পুড়ে যায় যা আপনারা ছবিতে দেখতে পারছেন। মোবাইল ফোনটি দুই মাস আগে কেনা হয়’। 

মাত্র চারদিনের ব্যবধানে দু’টি হ্যান্ডসেট বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি শাওমি বা বাংলাদেশে শাওমি’র পরিবেশক এসইবিএল এর পক্ষ থেকে। হ্যান্ডসেট বিস্ফোরণ সম্পর্কে জানতে যোগাযোগ করা হলে ফোন রিসিভ করেননি শাওমির বাংলাদেশে জনসংযোগ সংস্থার কর্মকর্তা মাহবুব রহমান। 

এদিকে শাওমি’র প্রতি ক্ষোভ ব্যক্ত করতে দেখা গেছে ব্র্যান্ডটির ব্যবহারকারীদের। শাওমি সম্পর্কিত ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন কোম্পানিটির হ্যান্ডসেট ব্যবহারকারীরা। প্রসেনজিত দত্ত নামের এক আইডি থেকে মন্তব্য করা হয়, ‘এমআই (শাওমি) পোড়ার ঘটনা নতুন নয়। এটা রেগুলারলি (নিয়মিত) হয়। কোনটা নিউজ আসে কোনটা আসে না’। 

সুমন নামের আরেক ব্যবহারকারী মন্তব্য করেন, এসব খবরে আমরা সাধারণ মানুষেরা বিভ্রান্ত হই যে শাওমি ফোন কিনবো কী কিনবো না। আর যাদের শাওমি ফোন আছে তারা বিভ্রান্ত হই যে এই ব্র্যান্ডের ফোন আর ব্যবহার করবো কী করবো না

এই বিভাগের আরো খবর