শনিবার   ২৩ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬   ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
কলকাতা থেকে দেশে ফিরলেন প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে হিযবুত তাহরীরের আঞ্চলিক প্রধান আটক সরকার আলেমদের সঙ্গে নিয়ে দেশের উন্নয়ন করতে চায়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নরসিংদীর এমপি বুবলীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে কাউকে ছাড় নয়: খাদ্যমন্ত্রী ভারত মুক্তিযুদ্ধের সময় পাশে ছিল তা ভুলিনি: প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকদের নৈতিক শিক্ষা খুবই প্রয়োজন: পরিকল্পনামন্ত্রী সামাজিক মাধ্যমে গুজব বন্ধে বিধিমালা হচ্ছে- তথ্যমন্ত্রী শুক্রবারের মধ্যে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে: কাদের ঘণ্টা বাজিয়ে খেলার উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীকে গড়ে তোলা হবে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সশস্ত্র বাহিনীকে কাজ করার আহ্বান সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা
৩৫

সরকার গঠনে ব্যর্থ হয়ে শেষমেশ পথ ছাড়লেন নেতানিয়াহু

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০১৯  


নতুন সরকারে বসতে জোট গঠনের সর্ব্বোচ্চ চেষ্টা, তদবির করেও ব্যর্থ হয়ে অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ব্যাপারে হাল ছেড়ে দিয়েছেন ইসরায়েলের ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। এতে করে সরকারে বসার দৌড়ে এবারে সুযোগ পেতে চলেছেন নেতানিয়াহুর প্রধান প্রতিদ্বন্দী ব্লু  অ্যান্ড হোয়াইট পার্টির নেতা বেনি গান্টজ। 

সোমবার (২১ অক্টোবর) এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতির মধ্য দিয়ে নেতানিয়াহু নতুন সরকার গড়ার প্রচেষ্টা থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে এ তথ্য জানা যায়।  

খবরে বলা হয়, গত মাসে ইসরায়েলের পুনঃনির্বাচনে কোনো দলই সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন নিশ্চিত করতে পারেনি। দেশটির সংবিধান অনুসারে কোনো দল বা জোটকে সরকার গঠন করতে হলে পার্লামেন্ট ‘নেসেট’র ১২০ আসনের মধ্যে অন্তত ৬১ আসন নিশ্চিত করতে হবে। কিন্তু নির্বাচনে নেতানিয়াহুর ডানপন্থি লিকুদ পার্টি পায় মাত্র ৩২ আসন, অন্যদিকে মধ্যপন্থি বেনি গান্টজের ব্লু  অ্যান্ড হোয়াইট পার্টি পায় ৩৩ আসন। ওই পরিস্থিতিতে সর্ব্বোচ্চ আসন পাওয়া দুই দলের সামনেই জোট সরকার গঠনের চেষ্টা করা ছাড়া আর কোনো পথ খোলা ছিল না। 

শেষমেশ দেশটির প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিন প্রথমে নেতানিয়াহুকে জোট সরকার গঠনের সুযোগ দেন। কিন্তু, নেতানিয়াহু সে চেষ্টায় ব্যর্থ হয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই এবারে এ সুযোগ পেতে চলেছেন বেনি গান্টজ। প্রেসিডেন্ট এরই মাঝে এ ব্যাপারে ইঙ্গিতও করেছেন। 

সোমবারের বিবৃতিতে নেতানিয়াহু বলেন, বৃহৎ একটি জাতীয় সরকার গড়তে ও আবারও একটি পুনঃনির্বাচন এড়াতে গত কয়েক সপ্তাহে বেনি গান্টজকে সমঝোতার টেবিলে আনতে আমি সব ধরনের চেষ্টা চালিয়েছি। কিন্তু তা সফল হয়নি।

অন্যদিকে গান্টজের ব্লু  অ্যান্ড হোয়াইট পার্টি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তার দল একটি উদার জোট সরকার গঠনের ব্যাপারে সংকল্পবদ্ধ। এ কারণেই তারা দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত নেতানিয়াহু ও ডানপন্থী  লিকুদ পার্টির সঙ্গে জোট গড়তে আগ্রহী নয়। 

সাবেক সামরিক সেনাপ্রধান বেনি গান্টজও যদি জোট গড়ে সংখ্যাগরিষ্ঠের সরকার গঠনে ব্যর্থ হন, তবে ইসরায়েলকে দ্বিতীয়বারের মতো পুনঃনির্বাচনের দিকে যেতে হবে। এর আগে চলতি বছরের এপ্রিলে ইসরায়েলের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেবারে কোনো দল বা জোটই সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করতে না পারায় সেপ্টেম্বরে পুনঃনির্বাচন দেওয়া হয়। নতুন সরকার গড়ার ব্যাপারে ২৮ দিনের সময় পাবেন বেনি গান্টজ।  

এই বিভাগের আরো খবর