সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
দেশে মুক্তিযুদ্ধের পতাকাবাহী সরকার প্রতিষ্ঠিত: রাষ্ট্রপ‌তি শহীদ আসাদের প্রতি ছাত্রলীগের শ্রদ্ধা বাউফলে নিজ কন্যা সন্তান হত্যা মামলার আসামী পিতা গ্রেপ্তার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন আইসিসির সিইও সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় এমপি মান্নানের প্রথম জানাজা সম্পন্ন সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা : ১০ জঙ্গির ফাঁসি এমপি মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা আদালতে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা মামলার ৪ আসামি চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্প শহীদ আসাদ দিবস আজ বৈষম্য বিলোপ আইনের খসড়া তৈরির কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী মানবতার কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি তুরাগতীরে পুরো পরীক্ষাই পেছাবে, নতুন সূচি আজ : শিক্ষামন্ত্রী ফাইভজির স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হবে শিগগির: অর্থমন্ত্রী ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত ইসির এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সোমবার মান্নানের জানাজা এমপি আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে গভীর শোক রাষ্ট্রপতির পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান বসছে এ মাসেই
১৮৭

হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন,৬ জনের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা

প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল ২০১৯  

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জের আলোচিত আবুল বাশার হত্যা মামলায় ৫ জনকে যাবজ্জীবণ কারাদন্ড এবং ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ২ বছর কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। বুধবার বিকেলে পটুয়াখালী অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক একেএম এনামুল করিম এই রায় প্রদান করেন। একই মামলায় আরও ৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে। 
আদালত সুত্রে জানা গেছে, ২০০৬ সালের ২০ নভেম্বর বিকেলে মির্জাগঞ্জের কাকরাবুনিয়া এলাকায় চাষযোগ্য জমিতে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের সময় কাকড়াবুনিয়া ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বাশার মারা যায়। এ ঘটনায় ২১ নভেম্বর নিহত বাশারের চাচাতো ভাই ইউনুস আলী বাদী হয়ে ১১ জনকে বাদী করে একটি মামলা দায়ের করেন। ২০০৭ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারী ১১জনকে আসামী করে মির্জাগঞ্জ থানার এসআই মাহবুবুল আলম আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। মামলার ১৮জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহন শেষে বিজ্ঞ বিচারক সাহেব আলী, নিজাম, আনছার, জুয়েল, সোহরাবকে যাবজ্জীবণ কারাদন্ড এবং ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ২ বছর কারাদন্ড। এছাড়া  মমিন, সুলতান, রীনা ওরফে হেলেনাকে ২ বছর কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদন্ড এবং আবদুল জব্বারকে ৫ বছর কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদন্ড, সোবাহানকে ২ বছর কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদন্ড, শাজাহানকে ৫ বছর কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদন্ডের আদশ প্রদান করে। 
দন্ডপ্রাপ্তদের স্বজনরা মামলার রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, ন্যায় বিচারের জন্য তারা উচ্চ আদালতে যাবেন।  
রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডিশনাল পিপি অ্যাডভোকেট ইউসুফআলী হাওলাদার এবং সাবেক পিপি অ্যাডভোকেট হারুন অর রশিদ। আসামি পক্ষের মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম।
 

এই বিভাগের আরো খবর