শনিবার   ২৩ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬   ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
কলকাতা থেকে দেশে ফিরলেন প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে হিযবুত তাহরীরের আঞ্চলিক প্রধান আটক সরকার আলেমদের সঙ্গে নিয়ে দেশের উন্নয়ন করতে চায়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নরসিংদীর এমপি বুবলীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে কাউকে ছাড় নয়: খাদ্যমন্ত্রী ভারত মুক্তিযুদ্ধের সময় পাশে ছিল তা ভুলিনি: প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকদের নৈতিক শিক্ষা খুবই প্রয়োজন: পরিকল্পনামন্ত্রী সামাজিক মাধ্যমে গুজব বন্ধে বিধিমালা হচ্ছে- তথ্যমন্ত্রী শুক্রবারের মধ্যে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে: কাদের ঘণ্টা বাজিয়ে খেলার উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীকে গড়ে তোলা হবে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সশস্ত্র বাহিনীকে কাজ করার আহ্বান সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা
৩৬৯

হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক, ফেসবুকের কাছে তথ্য চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০১৯  

 

হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক করে সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দিয়ে যারা সুযোগ নিতে চায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

রবিবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গণভবনে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি এই নির্দেশ দিয়েছেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এক হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক করে ফেসবুকে গুজব ছড়ানো হয়েছে। এই বিষয়ে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে।

দেশবাসীকে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দেশকে যখন এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। তখন নানা ধরনের ঘটনা ঘটছে। 

ভোলার ঘটনায় সাংবাদিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি যেন অশান্ত না হয়, সেভাবে মিডিয়াকে খবর প্রচার করতে হবে।   

প্রসঙ্গত, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মহানবী (সা:) কে কটূক্তি করার জের ধরে প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক দেন স্থানীয় মুসলিম সম্প্রদায়। এ ঘটনায় পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসীর সংঘর্ষের জেরে চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও শতাধিক গ্রামবাসী। 

শুক্রবার উপজেলার কাচিয়া ২নং ওয়ার্ডের বিপ্লব নামে এক যুবকের ফেসবুক পোস্ট কেন্দ্র করে উপজেলাজুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। শনিবার ওই যুবকসহ আরও একজনকে আটক করে পুলিশ। 

পুলিশ বিপ্লব চন্দ্র শুভকে থানায় আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। এ ঘটনায় বিপ্লবের ফাঁসির দাবি করে পুরো মুসলিম জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

স্থানীয় জনতার দাবি, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট দেয়ার প্রতিবাদে ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় মুসল্লিদের পূর্ণনির্ধারিত প্রতিবাদ সমাবেশে একত্রিত হন মুসল্লিরা।

এ সময় শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশ বাধা দেয় ও তাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে কাঁদানি গ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এতে তাদের চারজন নিহত হন। এ ছাড়া তাদের শতাধিক লোক আহত হয়।

পুলিশ সূত্র জানায়, শুভ নামে একজনের ফেসবুক আইডি হ্যাকড হয়েছিল গত ১৮ অক্টোবর। এরপর হ্যাকারদের গ্রেফতার করা হয়। তারা পুলিশি হেফাজতে। এই বিষয় নিয়ে গতকাল এলাকার স্থানীয় প্রতিনিধি গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং আলেমদের সঙ্গে বসেছিলাম। তাদের পূর্ব নির্ধারিত প্রোগ্রাম আজকে হওয়ার কথা ছিল না। এরপর সকালে দেখলাম তারা স্টেইজ বানাচ্ছেন। প্রথমে শান্তিপূর্ণভাবেই কর্মসূচি হচ্ছিল। 

পুলিশের দাবি, তারা শান্তিপূর্ণ অবস্থান বজায় রাখতে ঘটনাস্থলে সব কার্যক্রম পরিচালিত করছেন। হঠাৎ করে কিছু উচ্ছৃঙ্খল জনতা তাদের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় তাদের ধাওয়া দেওয়া হয়।

এ সময় তারা মসজিদের দ্বিতীয় তলায় আশ্রয় নেন। সেখানে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে তাদের ১০-১২ পুলিশ সদস্য আহত হন। তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার চেষ্টা করে। এ ঘটনায় প্রায় ১২-১৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

রবিবার (২০ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে বোরহানউদ্দিন হাইস্কুল মাঠে পূর্বঘোষিত একটি সমাবেশ চলছিল। এ সময় পুলিশ সমাবেশ সময়ের আগে শেষ করতে বলায় জনতা বিক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে। এতেই পুলিশ-জনতার এ সংঘর্ষ বাধে। এ সময় ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন এবং আহত হন কমপক্ষে শতাধিক।

নিহতরা হলেন- মাহাফুজ, মিজান, আবু তাহের ও মাহাবুব। মাহফুজুর রহমান বোরহানউ‌দ্দিন পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়া‌র্ডের সা‌বেক ক‌মিশনার মিরাজ পা‌টোয়া‌রির ভাই। আহতদের ভোলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

একটি ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষের সূচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিশাল রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি এহসান উল্লাহ। তিনি জানান, মুসল্লিরা হঠাৎ করে পুলিশের ওপর হামলা চালায়, পুলিশ আত্মরক্ষার জন্য প্রথমে ফাঁকা গুলি চালায়। এরপরও উত্তেজিত জনতা পুলিশকে লক্ষ করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করলে, পুলিশ গুলি ছুঁড়ে। পরবর্তীতে জানতে পারে ৩ জন নিহত হয়েছে।

এলাকাবাসীর তথ্যমতে জানা যায়, ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার কাচিয়া ২ নম্বর ওয়ার্ডের বিপ্লব কুমার শুভ নামক একজন ফেসবুক মেসেঞ্জারে মহান আল্লাহ ও তার নবী মুহাম্মদ (সঃ)-কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন। এরই প্রতিবাদে তারা সমাবেশ করলে পুলিশের বাধার মুখে সেখানে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এই বিভাগের আরো খবর