• সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৯ ১৪২৮

  • || ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
দেশের ভাবমূর্তি নষ্টকারীদের বিষয়ে সচেতন হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মাঝে মধ্যে কিছু ঘটিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের অপচেষ্টা হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন পায়রা সেতুতে হাঁটতে পারলে ভালো লাগতো: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে কেউ আর পিছিয়ে রাখতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী স্বপ্নের পায়রা সেতু উদ্বোধন ‘বাসযোগ্য গ্রহ থেকে অনেক অনেক দূরে রয়েছে বিশ্ব’ পায়রা সেতুর উদ্বোধন আজ, দক্ষিণাঞ্চলের আরেকটি স্বপ্নপূরণ নেতাকর্মীদের নজরদারি বাড়াতে বললেন শেখ হাসিনা কুমিল্লার ঘটনা দুঃখজনক, অপরাধীর বিচার হবে: প্রধানমন্ত্রী ‘দেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি পণ্য হবে ডিজিটাল ডিভাইস’ সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলেই উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী বিদেশে বিনিয়োগের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী পূর্বাচলে প্রদর্শনীকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন আজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কঠোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রদায়িক অপশক্তির তৎপরতা প্রতিরোধের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘এমন বাংলাদেশ গড়তে চাই, যেখানে শিশুরা বড় হবে সুন্দর পরিবেশে’ একটা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বাংলাদেশকে গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী আমাদের ছোট রাসেল সোনা: শেখ হাসিনা শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন করোনাকালে ১৬০০ ভার্চুয়াল সভায় অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

ভবিষ্যতে অন্যের মুখাপেক্ষী হতে হবে না: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০২১  

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতিকে দিয়েছেন রাজনৈতিক মুক্তি, আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের পাশাপাশি জাতিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন। ভবিষ্যতে আমাদের আর অন্যের মুখাপেক্ষী হতে হবে না।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) গাজীপুরের কালিয়াকৈরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ‘এক্সপোর্ট কম্পেটিটিভনেস ফর জবস’ প্রকল্পের আওতায় ‘সেন্টার অব এক্সিলেন্স ফর সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি’র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

মোজাম্মেল হক বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর দীর্ঘদিন স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি ক্ষমতায় থাকায় দেশের কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন হয়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। প্রতিটি সেক্টরে এভাবে অগ্রগতি অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে।

তিনি বলেন, পৃষ্ঠপোষকতা ও প্রযুক্তিগত সহায়তা পেলে গার্মেন্টস শিল্পের মতো চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, পাদুকা, প্লাস্টিক এবং লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ইত্যাদি খাত থেকেও প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব। সে লক্ষ্যেই সেন্টার অব এক্সিলেন্স ফর সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি স্থাপন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, উচ্চমাত্রার প্রবৃদ্ধি, টেকসই উন্নয়ন এবং শোভন কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে রফতানি বহুমুখীকরণের লক্ষ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে এক্সপোর্ট কম্পিটিটিভনেস ফর জবস শীর্ষক ফ্ল্যাগশিপ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য হলো অত্যাধুনিক টেকনোলজি ব্যবহারের মাধ্যমে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও পণ্যের গুণগত মানোন্নয়ন করা। এ লক্ষ্যে প্রকল্পের আওতায় ৪টি অত্যাধুনিক টেকনোলজি সেন্টার চট্টগ্রাম, গাজীপুরে ২টি ও মুন্সিগঞ্জে প্রতিষ্ঠা করা হবে।

বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ, এক্সপোর্ট কম্পেটিটিভনেস ফর জবস প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. মনসুরুল আলম, গাজীপুর জেলা প্রশাসক এস. এম. তরিকুল ইসলাম এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।