• বৃহস্পতিবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
প্রশিক্ষিত সামরিক বাহিনী গঠনে বিভিন্ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি বাংলাদেশ আর পিছিয়ে যাবেনা, এগিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশ সদাপ্রস্তুত পার্বত্য শান্তিচুক্তির ফলে দীর্ঘদিনের সংঘাতের অবসান ঘটে পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিশ্বের ইতিহাসে বিরল ঘটনা: প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ২৪ বছরে পার্বত্য শান্তি চুক্তি আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না: প্রধানমন্ত্রী গাড়ি ভাঙচুর-আগুন দিলেই ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধন ও জয়িতা টাওয়ারের ভিত্তি স্থাপন সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাবি: প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে অব্যাহত সমর্থন দেবে ওমিক্রন: করণীয় নির্ধারণে বৈঠকে ১৮ মন্ত্রণালয় রাজস্ব বোর্ডকে সেবাধর্মী, জনবান্ধব ও করদাতাবান্ধব করেছে সরকার ষড়যন্ত্র থাকবে, তবু দেশ এগিয়ে যাবে: প্রধানমন্ত্রী বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে ২৭ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ প্রস্তাব পেয়েছি বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিজনেস সামিট বিনিয়োগ বাজার তৈরি করবে: প্রধানমন্ত্রী তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউপিতে ভোটগ্রহণ শুরু

এবার বাবা-ভাইসহ গ্রেফতার আদিয়ান মার্টের সিইও জুবায়ের

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৩০ অক্টোবর ২০২১  

দেশের আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জুবায়েরসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব । শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ এর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তথ্য জানিয়েছে র‌্যাব। গ্রেফতাররা হলেন- আদিয়ান মার্টের সিইও জুবায়ের সিদ্দিকী, তার বাবা আবু বক্কর সিদ্দিকী, ভাই রতন সিদ্দিকী ও ম্যানেজার মিনারুল ইসলাম।

ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ এর কমান্ডার মেজর শরিফুল আহসান জানান, শুক্রবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার মোমিনপুর গ্রামে অবস্থিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্টে অভিযান চালানো হয়। প্রথমে আদিয়ান মার্টের প্রধান কার্যালয় ঘিরে রাখা হয়। পরে প্রতিষ্ঠানটির সিইও জুবায়েরকে খুলনা থেকে গ্রেফতার করা হয়। চুয়াডাঙ্গা থেকে গ্রেফতার করা হয় জুবায়েরের বাবা আবু বক্কর সিদ্দিকী, ভাই রতন সিদ্দিকী ও ম্যানেজার মিনারুল ইসলামকে।

তিনি আরও জানান, নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা অভিযান পরিচালনা করেছি। প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে গ্রাহকদের টাকা প্রতারণাসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। আমাদের কাছে তাদের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত প্রায় ৭ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে।

দেশে কিছু ই-কমার্সের প্রতারণা সামনে আসার পর যে কয়েকটি প্রতিষ্ঠান নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল তার মধ্যে ছিল আদিয়ান মার্ট। সর্বশেষ বিভিন্ন ব্যাংকের কার্ড ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা, বিকাশ পেমেন্টে নিষেধাজ্ঞা ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে নিরীক্ষক নিয়োগের খড়গের মধ্যে ছিল প্রতিষ্ঠানটি।