• সোমবার ২২ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৭ ১৪৩১

  • || ১৪ মুহররম ১৪৪৬

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

স্বর্ণ আত্মসাত ও সুমন হত্যার প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ৩

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩  

যশোরের বেনাপোলে চোরাচালানের স্বর্ণ আত্মসাত নিয়ে সুমন নামের এক রং মিস্ত্রিকে হত্যা মামলার ১২ আসামির মধ্যে প্রধান আসামি কাউন্সিলর কামাল হোসেনসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর আগে এ মামলার আরও তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার (২০ নভেম্বর) সকালে  ঢাকার আশুলিয়া কাঠগড়া এলাকা থেকে যশোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তাদেরকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন- বেনাপোল পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন, বেনাপোলের ছোট আচড়া গ্রামের সিরাজুলের ছেলে এজাজ রহমান ও সাদিপুর গ্রামের রফিজুল ইসলামের ছেলে ইসরাফিল ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত প্রাইভেটকার ও আলামত উদ্ধার করা হয়।

ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রুপন কুমার সরকার জানান, ৩৫ পিস স্বর্ন আত্মসাতের অভিযোগে ১১ নভেম্বর বেনাপোল থেকে রং মিস্ত্রি ওমর ফারুক ওরফে সুমনকে (২৬) অপহরণ করে স্বর্ণ চোরাকারবারী চক্র। পরে সুমনকে হত্যা করে লাশ মাগুরার রামনগর এলাকায় মহাসড়কের পাশে ঝোপের মধ্যে ফেলে দেয়া হয়। ঘটনার পরই ডিবি পুলিশ তদন্ত শুরু করে। সিসিটিভি ফুটেজ ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ঘটনায় জড়িত প্রধান আসামি ও তার দুই সহযোগিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে বেনাপোল স্থল বন্দর বাস টার্মিনাল-এর সামনে থেকে অপহৃত সুমনের মরদেহ গুমের কাজে ব্যবহৃত প্রাইভেটকার এবং হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত লোহার পাইপ, প্লাস উদ্ধার করা হয়েছে।