• সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৪

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি ফজিলাতুন নেছা মুজিব দৃঢ়চেতা-বলিষ্ঠ চরিত্রের অধিকারী ছিলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ বাংলাদেশে সহায়তা অব্যাহত রাখবে চীন: ওয়াং ই চীনে ৯৯ শতাংশ পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে বাংলাদেশ মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি মায়ের দুধ শিশুর সর্বোত্তম খাবার: রাষ্ট্রপতি শেখ কামাল ছিলেন ক্রীড়া ও সংস্কৃতিমনা সুকুমার মনোবৃত্তির মানুষ

চবিতে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৫ জুন ২০২২  

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। সকাল ১১টায় থেকে শুরু হয় আবেদন। আবেদন চলবে আগামী ১৩ জুলাই রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষা ১৬ আগস্ট থেকে শুরু হবে। ১৬ ও ১৭ আগস্ট ‘এ’ ইউনিট, ১৯ আগস্ট ‘সি’ ইউনিট, ২০ ও ২১ আগস্ট ‘বি’ ইউনিট, ২২ ও ২৩ আগস্ট ‘ডি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ২৪ আগস্ট সকালে উপ-ইউনিট ‘বি-১’ ও একই দিন বিকেলে ‘ডি-১’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ইউনিট/উপ-ইউনিটে আবেদন ফি ২০০ টাকা বাড়িয়ে ৭৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর সাথে ১০০ টাকা প্রসেসিং ফি যুক্ত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম বলেন, ভর্তি পরীক্ষার আবেদন কার্যক্রম নিয়ে আমাদের সব প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। আশা করি শিক্ষার্থীদের আর আবেদন করতে কোনো অসুবিধা হবে না। 

আবেদনের ক্ষেত্রে যেসব বিষয় খেয়াল রাখতে হবে শিক্ষার্থীদের-

এবারের ভর্তি পরীক্ষায় শুধুমাত্র যারা ২০১৯ সালে মাধ্যমিক ও ২০২১ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছেন তারাই আবেদন করতে পারবেন। 

যেভাবে আবেদন করবেন: বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে (https://admission.cu.ac.bd) আবেদন করতে পারবেন। 

আবেদন করতে ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রথমে শিক্ষার্থীরা তাদের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও মাধ্যমিকের (এসএসসি) তথ্য পূরণ করে ‘Submit’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। 

এরপর যেকোনো ইউনিট/উপ ইউনিটে আবেদনের যোগ্য হলে পরবর্তী পেইজে মোবাইল নম্বর প্রদান করতে হবে। এবং ‘Send confirmation code’ বাটনে ক্লিক করলে আবেদনকারীর প্রদানকৃত নম্বরে ‘Confirmation code’ আসবে। এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত এবং সচল মোবাইল নম্বরটি ব্যবহার করতে হবে। 

‘Confirmation code’ প্রদান করে ‘Verify code’ বাটনে ক্লিক করার পর সঠিক হলে আবেদনকারীর একটি প্রোফাইল তৈরি হবে এবং মোবাইলে ‘UserID’ ও ‘Password’ পাঠানো হবে। যা সংরক্ষণ করা জরুরি। 

পরবর্তীতে ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে ওয়েবসাইটে লগইন করলে আবেদনকারীর যাবতীয় তথ্যাদি প্রদর্শিত হবে। কোটা থাকলে সেটি যুক্ত করতে পারবেন।

আবেদনকারী তার প্রোফাইলের নির্দিষ্ট অংশে সঠিক মাপের (Size:150kb,300×300 pixels) সদ্য তোলা স্পষ্ট ছবি (চেহারা অনাবৃত) আপলোড করবেন। পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের ভাষা নির্বাচন করতে ‘Question Language’ এ ক্লিক করতে হবে। পাশাপাশি তিনি কোন কোন ইউনিটে আবেদনের যোগ্য এবং আগ্রহী সে অনুযায়ী ‘Select’ করতে হবে।

ইউনিট/উপ ইউনিট সিলেক্ট করার পর আবেদনকারী ‘Apply’ বাটনে ক্লিক করে একটি ‘Bill Number’ পাবেন। সেটি ব্যবহার করে ‘বিকাশ’ অথবা ‘রকেট’ এর মাধ্যমে নির্ধারিত ফি জমা দিতে হবে। 

এছাড়া ছবি/কোটা/প্রশ্নের ভাষা/মোবাইল নম্বর সংশোধন করতে চাইলে আবেদনকারী তার প্রোফাইলে লগইন করে ৩০০ (তিনশত) টাকা ফি প্রদান সাপেক্ষে করতে পারবেন। একইভাবে এসব তথ্য পরিবর্তন করতেও প্রোফাইলের ‘Personal’ ট্যাবে ‘Request To Change’ বাটনে ক্লিক করে নির্ধারিত ফি প্রদান করে পরিবর্তন করতে পারবে। 

ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীরা যা করবে: এ-লেভেল/ও-লেভেল/সমমান বিদেশি পাঠক্রমে বা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান অনুষদ অফিসে তার গ্রেডশিট/মার্কশিটসমূহের ফটোকিপসহ আবেদন করতে হবে এবং চবি রেজিস্ট্রার অনুকূলে অগ্রণী ব্যাংক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা থেকে সংগৃহিত ১০০০/- (এক হাজার) টাকার পে-অর্ডার সমতা নিরূপণ ফি হিসেবে প্রদান করতে হবে। সমতা নিরূপনেট পর আবেদনকারিকে একটি সমতা নিরূপন সনদপত্র পদান করা হবে এবং উক্ত সনদপত্রে Equivalent ID উল্লেখ থাকবে।

প্রদত্ত Equivalent ID ভর্তির ওয়েবসাইটে প্রবেশের সময় মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক রোল নম্বরের স্থানে বসিয়ে এবং বোর্ডের স্থলে  Equivalent Board নির্বাচন করে যথাযথ সময়ে নির্দিষ্ট আবেদন ফি জমা দেয়ার রশিদ সংগ্রহ করতে হবে।