• বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৯ ১৪৩১

  • || ১৭ মুহররম ১৪৪৬

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করে না দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

বর্ষায় বাড়ে একজিমার সমস্যা, সমাধানে কী করবেন?

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২৪  

একজিমা খুবই যন্ত্রণাদায়ক এক ধরনের চর্মরোগ। ত্বকের বিভিন্ন ধরনের রোগের মধ্যে একজিমা খুবই জটিল এক অসুখ। একবার হলে সহজে সারে না। একজিমায় আক্রান্তদের ত্বকে চুলকানি, জ্বালা, শুষ্ক হয়ে যাওয়া, এমনকি ফুসকুড়ির মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, একজিমা হওয়ার নির্দিষ্ট কোনো বয়স নেই।

সব বয়সের মানুষের ত্বকেই একজিমা হতে পারে। তাই সবাইকে সতর্ক হতে হবে। আবার একজিমার সমস্যা যে কোনো সময়ই দেখা দিতে পারে। তবে দেখা গেছে, বর্ষাকালে একজিমার সমস্যা আরও বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে কয়েকটি ঘরোয়া উপায় মানলে পেতে পারেন স্বস্তি। জেনে নিন করণীয়-

একজিমা কীভাবে ছড়ায়?

১. বেশিরভাগ মানুষই এটোপিক একজিমাতে আক্রান্ত হন।
২. বেশ কিছু ওষুধ ও টিকা একজিমার কারণ হতে পারে। আসলে এ ধরনের মানুষের ত্বক খুব বেশি মাত্রায় সংবেদনশীল হয়।

৩. এছাড়া ধূমপান ও মদ্যপানের কারণেও একজিমার প্রকোপ বাড়তে পারে।
৪. এমনকি দেখা গেছে, লোশন ও ক্রিম ব্যবহারের পরও মানুষ এই সমস্যায় আক্রান্ত হচ্ছেন।
৫. একজিমার সঙ্গে মানসিক চাপেরও একটি ভূমিকা আছে।
একজিমা সারাতে কী করবেন?

ত্বক পরিষ্কার রাখুন

সব সময় নিজের ত্বক পরিষ্কার রাখুন। এক্ষেত্রে বাইরে থেকে এসে সরাসরি গোসল করে নিন। ত্বকের সুস্বাস্থ্যের জন্য ভালো সাবান ব্যবহার করুন।

গোসল করুন নিয়মিত

বাইরে থেকে ঘরে ফিরে গোসল করুন দ্রুত। হাত-মুখ না ধুয়ে তা চোখে-মুখে লাগাবেন না। একজিমায় যারা ভুগছেন তারা হালকা গরম পানিতে গোসল করুন।

নিমের তেল ও নারকেল তেল ত্বকে ব্যবহার করুন

নিমের তেল ও নারকেল তেল সমমাত্রায় মিশিয়ে সপ্তাহে অনন্ত তিনবার ত্বকে ব্যবহার করে গোসল করুন। এই নিয়ম মানলে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে পারবেন। এমনকি একজিমা থেকে মিলবে স্বস্তি।