• সোমবার   ১৬ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি খাদ্য সাশ্রয় করুন: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাধীনভাবে সরকারের সমালোচনা করতে পারে: প্রধানমন্ত্রী ‌ঢাকায় বসে সমালোচনা না করে গ্রামে ঘুরে আসুন বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছে ফেলতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্টকে রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন শেখ হাসিনাকে স্পেনের সরকার প্রধানের শুভেচ্ছা পি কে হালদার গ্রেফতার নানামুখী ষড়যন্ত্র হচ্ছে, সতর্ক থাকতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে সমর্থন দেওয়ার প্রত্যয় এডিবির ভাইস প্রেসিডেন্টের আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের চার বছর পূর্তি আজ নারী খেলোয়াড়দের আরও সুযোগ দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ‘খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চা একটি জাতির জন্য অপরিহার্য’ ফ্ল্যাটে বাস করে শিশুরা ফার্মের মুরগির মতো হয়ে যাচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার দেয়া হচ্ছে ৮৫ ক্রীড়া ব্যক্তিত্বকে রাষ্ট্রপতির সাজেক সফর স্থগিত একনেকে ৫ হাজার ৮২৫ কোটি টাকার ১১ প্রকল্প অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্র থেকে বর্ধিত বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি করতে প্রস্তুত বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

করোনামুক্ত হওয়ার দু’বছর পরও কিছু লক্ষণ থাকতে পারে

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৪ মে ২০২২  

করোনামুক্ত মানেই যে আপনি সম্পূর্ণ সুস্থ, এমনটা নয়। টেস্টে নেগেটিভ আসা মানে আরেক লড়াইয়ের পর্ব শুরু। করোনা থেকে সেরে ওঠার পর শরীরে অনেক ধরনের জটিলতা থেকে যেতে পারে। কিছু উপসর্গ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ঠিক হয়ে যায়। আর কিছু উপসর্গ থাকতে পারে দু’বছর পর্যন্ত।

করোনা সংক্রমণ বর্তমানে কিছুটা হলেও হ্রাস পেয়েছে। ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে জনজীবন। বাড়ি থেকে কাজ, অনলাইন পড়াশোনার বদলে অফলাইনে চালু হয়ে হয়েছে সব। তবে বছরখানেক আগের ছবিটা এমন ছিল না। করোনা কোপে তখন সবাই বিপর্যস্ত। পরপর তিন বার করোনা স্ফীতি পেরিয়ে এসে এখন একটু হলেও কমেছে সংক্রমণ।

তবে ল্যানসেটের গবেষণা বলছে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরও প্রায় দু’বছরের মতো রোগীদের মধ্যে করোনার লক্ষণ থেকে যেতে পারে।

মূলত চীনে পূর্বে আক্রান্ত কোভিড রোগীদের মধ্যে এই গবেষণাটি চালানো হয়েছিল। বিশেষ করে যারা দীর্ঘদিন কোভিডে ভুগছেন, তাদের মধ্যে করোনা পরবর্তী সময়েও বিভিন্ন শারীরিক লক্ষণ দেখা দিচ্ছে। এমনকি, করোনা টিকা নেওয়া থাকলেও এই ধরনের লক্ষণগুলো দেখা দিতে পারে।

এর অন্যতম কারণ মূলত কোভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠার পর সঠিক ভাবে শরীরের যত্ন না নেওয়া। পুষ্টিকর খাবার না খাওয়া, অস্বাস্থ্যকর জীবনযাবন করা। এর ফলে বছর খানেক আগে কোভিড মুক্ত হওয়া ব্যক্তিরাও ক্লান্তি, দুশ্চিন্তা, অনিদ্রার মতো উপসর্গে ভুগছেন।

গবেষণা বলছে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার ছ’মাস পরে প্রায় ৬৮ শতাংশ করোনা আক্রান্তদের মধ্যে লং কোভিডের উপসর্গ দেখা দিয়েছে। ক্লান্তি, দুশ্চিন্তা ছাড়াও গাঁটে ব্যথা, পেশির দুর্বলতা, মানসিক উদ্বেগ, গ্যাসের সমস্যা সেই তালিকায় পড়ে। সংক্রমিত হওয়ার দু’বছর পর কোভিডের বেশির ভাগ উপসর্গ অত সক্রিয় না থাকলেও কিছু কিছু লক্ষণ থেকে যাচ্ছে।