• রোববার   ০১ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
একনেক বৈঠক শুরু, অনুমোদন হতে পারে ১০ প্রকল্প করোনা টেস্টে গ্রামীণ জনগণের ভীতি নিরসনে কাজ করতে হবে জয়ের কাছ থেকেই আমি কম্পিউটার শিখেছি : প্রধানমন্ত্রী মানুষকে ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদন হবে দেশেই: শেখ হাসিনা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন আজ করোনা মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীসহ সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক সুশৃঙ্খল সেনাবাহিনী গণতন্ত্র সুসংহত করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ নভেম্বরে এসএসসি, ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী নিম্নআয়ের মানুষের জন্য ৩২০০ কোটি টাকার প্রণোদনা ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট মানতে হবে যেসব বিধিনিষেধ কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি দারিদ্র্যের সাথে জনসংখ্যা বৃদ্ধির সম্পর্ক রয়েছে: রাষ্ট্রপতি উন্নয়নের অন্যতম পূর্বশর্ত পরিকল্পিত জনসংখ্যা: প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালে শয্যা ও অক্সিজেন বাড়াতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ক্লাইমেট ভালনারেবলস ফাইন্যান্স সামিট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এক টন আম যাচ্ছে নেপালে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ব্রাজিলে প্রেসিডেন্টের অভিশংসনের দাবিতে বিক্ষোভ

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২১  

ব্রাজিলে করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ প্রেসিডেন্ট জাইয়া বলসোনারোর অভিশংসন ও কারাবাসের দাবিতে দেশটিতে বিক্ষোভ চলছে। ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরো ও সাও পাওলো শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে হাজারো নাগরিকের ঢল নেমেছে। প্রতিবাদী ও ব্যঙ্গাত্মক ব্যানার-ফেস্টুন ও কার্টুনে তারা জাইয়া বলসোনারো ও তার পরামর্শক চিকিৎসক নিসে ইয়ামগুচির তীব্র নিন্দা জানাচ্ছেন।

বিক্ষুব্ধ নাগরিকদের অভিযোগ, জাইয়া বলসোনারোর প্রশাসন সংক্রমণ ঠেকাতে চূড়ান্ত ব্যর্থ। লাখো লাখো মানুষের মৃত্যুর পরও টিকাদান কর্মসূচি জোরদার করতে প্রেসিডেন্টের মাথাব্যথা নেই। করোনাভাইরাস মহামারির পর ব্রাজিলে ৫ লাখেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সংখ্যা বিচারে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই ব্রাজিলের অবস্থান।

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে উদ্ধৃত করে ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, ব্রাজিলের গড়ে দৈনিক ২ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারাচ্ছেন। দেশটির ১১ শতাংশ নাগরিকের টিকার ডোজ সম্পন্ন হয়েছে। অন্যদিকে ২৯ শতাংশ নাগরিক টিকার প্রথম ডোজই কেবল পেয়েছেন।

গত বছর ব্রাজিলে করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলে তার প্রতিবাদে মে মাসে ব্রাজিলে রাজধানী ব্রাসিলিয়ায় করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারের ব্যর্থতা ও নাগরিকদের দ্রুত টিকাদানের দাবিতে রাজধানী ব্রাসিলিয়ার কংগ্রেসের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন ব্রাজিলিয়ানরা। পরে সে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে অন্যান্য শহরে।

রিও ডি জেনিরো শহরের প্রেসিদেন্তে ভার্গাস এভিনিউয়ের বিক্ষোভ থেকে স্কুলশিক্ষক পলা কুইরেজ গার্ডিয়ানকে বলেন, ‘করোনাভাইরাস আমাদের বন্ধু, স্বজনসহ কতজনকে কেড়ে নিয়েছে। কিন্তু প্রেসিডেন্ট আমাদের কোনো কথাই কানে তুলছে না। তার মন্ত্রণাদাতা চিকিৎসক নিসে ইয়ামগুচির পরামর্শ অনুযায়ী তিনি আমাদের ক্লোরোকুইন সরবরাহ করে যাচ্ছেন।’ ক্লোরোকুইন ম্যালেরিয়া ম্যালেরিয়ার বহু পুরনো এক ওষুধ।

প্রেসিডেন্টের এই খামখেয়ালি আচরণকে ‘মহা উপদ্রব’ হিসেবে দেখছেন রিও ডি জেনিরোর ৭৫ বছর বয়সী প্রকৌশলী ওসহালদো পিনেরো। তিনি বলেন, তার এসব কর্মকাণ্ড আমাদের জন্য মহা উপদ্রব। বলসোনারোর প্রশাসন গণহত্যাকারী। এত মানুষ মরছে, তাদের কোনো মাথাব্যথাই নেই? আমি এ বয়সেও পথে নেমেছি। আমাকে প্রতিবাদ জানাতেই হবে।’

এদিকে ২০২২ সালের নির্বাচনকে সামনে রেখে তোড়জোড় শুরু করেছেন প্রেসিডেন্ট জাইয়া বলসোনারো। গত শনিবার তিনি সাও পাওলোতে সমর্থকদের নিয়ে মোটরসাইকেল র‌্যালি করেছেন। কিছুদিন আগে নির্বাচনী গণসংযোগে গিয়ে মাস্ক না পড়ায় তাকে জরিমানা গুণতে হয়েছে। গত বছর নিজেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। কিন্তু তিনি জোর গলায় বলছেন, তিনি টিকা নেবেন না।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, গত বছর থেকে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে নানা মহল থেকে কঠোর লকডাউনের পরামর্শ এলেও তা অগ্রাহ্য করেছেন জাইয়া বলসোনারো। তিনি বার বার অর্থনীতি চাঙ্গা রাখার দোহাই দিচ্ছেন বলেও নীতিনির্ধারক মহল জানিয়েছে। স্প্যানিশ নিউজ এজেন্সি ইপা ব্রাজিলের জীববিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্র বুতানতান ইনস্টিটিউটকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, তারা ১০ কোটি করোনাভ্যাক টিকা দেওয়ার প্রস্তাব দিলেও তাতে বলসোনারো প্রশাসন কোনো সায় দেয়নি। এরপর ফাইজারের ১৫ লাখ টিকার প্রস্তাবনাও ফিরিয়েছেন তিনি।

সূত্র: বিবিসি, ডয়েচে ভেলে।