• সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৯ ১৪২৮

  • || ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
দেশের ভাবমূর্তি নষ্টকারীদের বিষয়ে সচেতন হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মাঝে মধ্যে কিছু ঘটিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের অপচেষ্টা হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন পায়রা সেতুতে হাঁটতে পারলে ভালো লাগতো: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে কেউ আর পিছিয়ে রাখতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী স্বপ্নের পায়রা সেতু উদ্বোধন ‘বাসযোগ্য গ্রহ থেকে অনেক অনেক দূরে রয়েছে বিশ্ব’ পায়রা সেতুর উদ্বোধন আজ, দক্ষিণাঞ্চলের আরেকটি স্বপ্নপূরণ নেতাকর্মীদের নজরদারি বাড়াতে বললেন শেখ হাসিনা কুমিল্লার ঘটনা দুঃখজনক, অপরাধীর বিচার হবে: প্রধানমন্ত্রী ‘দেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি পণ্য হবে ডিজিটাল ডিভাইস’ সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলেই উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী বিদেশে বিনিয়োগের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী পূর্বাচলে প্রদর্শনীকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন আজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কঠোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রদায়িক অপশক্তির তৎপরতা প্রতিরোধের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘এমন বাংলাদেশ গড়তে চাই, যেখানে শিশুরা বড় হবে সুন্দর পরিবেশে’ একটা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বাংলাদেশকে গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী আমাদের ছোট রাসেল সোনা: শেখ হাসিনা শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন করোনাকালে ১৬০০ ভার্চুয়াল সভায় অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

সহকর্মী হিংসা করলে বুঝবেন যেভাবে

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০২১  

‘বন্ধুত্ব’ শব্দটির গভীরতা অনেক। জীবনে অনেক বন্ধুই পাওয়া যায়। কেউ হয় অনেক আপন। আর কেউ বা আপন সেজে পেছন থেকে ছুরি মারতেই বেশি পছন্দ করেন। ব্যক্তিগত বা কর্মক্ষেত্র, সবখানেই এমন কিছু মানুষের সঙ্গে আপনার বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে, যারা আপনার ভালো করার পরিবর্তে সর্বদা চায় আপনার ক্ষতি।

অফিসে অনেক সহকর্মীকে ভালো বন্ধু মনে হতেই পারে। কিন্তু বন্ধু সেজেও অনেক সহকর্মী ক্ষতি করার ওস্তাদ থাকে। যার মুখে থাকে মিষ্টি কথা আর মন ভরে থাকে গোপন হিংসায়। কেমন করে চিনবেন এ ধরনের মানুষদের? জেনে নিন সে টিপস।

আপনার সহকর্মী যদি সর্বদা আপনার সামনে ব্যস্ততা দেখানোর চেষ্টা করেন, তাহলে বুঝবেন কোনো না কোনো সমস্যা আছে। যখনই আপনি আপনার সহকর্মীর কাছে কোনো বিষয়ে সাহায্য চাইতে যাবেন কিংবা টি ব্রেকের কথা বললেই যদি আপনার সহকর্মী এড়িয়ে যায় এবং হাতে এখন অনেক কাজ আছে বলে নিজেকে ব্যস্ত দেখানোর চেষ্টা করে, তাহলে বুঝবেন সে আপনাকে হিংসা করে।
 
আপনার দক্ষতা নিয়ে যদি বস বা সিনিয়ররা আপনার কাজে সন্তুষ্ট হন এবং খুব প্রশংসা করেন, কিন্তু আপনার সহকর্মী এনিয়ে আপনাকে উপহাস করেন বা আপনার দক্ষতা নিয়ে তিনি ঠাট্টার সুরেই প্রশংসা করেন তাহলে বুঝবেন সে আপনাকে হিংসা করছে। এছাড়াও যদি কোনো কাজে আপনি ব্যর্থ হন এবং আপনার সহকর্মী এ নিয়ে খুব খুশি হয়ে থাকেন তাহলে এটা স্পষ্ট যে  তিনি আপনাকে হিংসা করেন।

আপনার পেছনে কথা বলা। মিষ্টি কথাবার্তা মানেই যে ভালো মনের মানুষ হবেন-এমনটা কিন্তু নয়। এমন অনেকে আছেন, যারা মানুষের পেছনেই কথা বলতে বেশি ভালোবাসেন। এ ধরনের মানুষেরা সবচেয়ে বেশি চেষ্টা করেন আপনার ক্যারিয়ারের ক্ষতি করতে। তারা আপনার বিরুদ্ধে অফিসের অন্য সহকর্মীদের কাছে কোনো খারাপ কথা বলতে পারেন বা তাদের কান ভাঙাতে পারেন। অফিসে আপনার নামে মিথ্যা গুজবও রটাতে পারেন।

যদি কোনো সহকর্মী আপনার সব পরামর্শ বা প্রতিটি আইডিয়ার সঙ্গে অসম্মত হন কিংবা ভিন্ন মত পোষণ করেন, তাহলে এটা স্পষ্ট যে তিন আপনাকে হিংসা করেন।

আপনি যখন কথা বলবেন তখন আপনাকে উপেক্ষা করা বা কথা না শোনার ভান করা, এমন হাবভাব দেখাবে যেন আপনি তার সামনেই নেই। সহকর্মীর মধ্যে এ ধরনের আচরণ দেখলে বুঝবেন তিনি আপনাকে পছন্দ করেন না। তাই তার থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন।

আপনার সহকর্মী যদি আপনার ওপর কথায় কথায় রাগ দেখান এবং অকারণে সব কিছুতে খুঁত ধরতে চেষ্টা করেন-তাহলে বুঝবেন তিনি আপনাকে হিংসা করেন।