• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২০ ১৪২৯

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
দেশের বিভিন্ন জেলায় বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী কন্যাশিশুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের কর্তব্য: রাষ্ট্রপতি সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কন্যাশিশুদের নিরাপত্তা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর যাত্রা বিরতি কৃষিতে বাংলাদেশের সাফল্যের সূচনা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব: রাষ্ট্রপতি সোনার বাংলা গড়তে কৃষিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ‘শিশুদের শারীরিক-মানসিক বিকাশে সুস্থ বিনোদনের বিকল্প নেই’ ‘মুজিববর্ষে ১ লাখ ৮৫ হাজার ১২৯টি ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে’ শিশুদের বুকে বড় হওয়ার স্বপ্ন জাগিয়ে দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামী প্রজন্মের জন্য পরিকল্পিত নগরায়ণের বিকল্প নেই : রাষ্ট্রপতি ‘সেনাবাহিনীর হাজার হাজার অফিসার ও সৈনিক হত্যা করে জিয়া’ যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী জিনপিংকে শুভেচ্ছা জানিয়ে হামিদ-হাসিনার চিঠি দেশে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে একযোগে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা চলছে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে দুর্গাপূজা এখন সার্বজনীন উৎসব: প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র কী করে বঙ্গবন্ধুর খুনিকে আশ্রয় দিয়েছে বিভিন্ন আয়োজনে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপিত

সকালে ঘুম থেকে উঠেই কি আবার শুয়ে পড়েন!

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৪ আগস্ট ২০২২  

সারা দিনের ক্লান্তি শেষে যখন রাতে ঘুমাতে যান তখন আপনার থেকে সুখী মানুষ হয়তো আর নেই, এমনটাই মনে হয় সবার। তবে এই শান্তির রেশ কেটে যায় ঠিক সকাল হলেই। কর্মব্যস্ত জীবনে ফেরার এই প্রচেষ্টায় অনেকটাই বাদ সাধে সকালে ঘুম ভাঙতে না চাওয়ার ইচ্ছা।

অনেকেই সঠিক সময়ে ঘুম থেকে উঠতে ঘড়িতে অ্যালার্ম দিয়ে রাখেন। কিন্তু অ্যালার্মের আওয়াজ বা শব্দ আপনার কান পর্যন্ত পৌঁছালেও আপনি তা বন্ধ করে আবার ঘুমিয়ে পড়েন। প্রতিদিনের এই বদঅভ্যাসটিই যেন আপনার রুটিনে পরিণত হয়েছে। এর জন্য হয়তো সঠিক সময়ে আপনি আপনার গন্তব্যে পৌঁছাতেও দেরি করছেন।

অথচ ঘুম থেকে সকালে উঠতে পারলে হাতে বেশ সময় পাওয়া যায়। যার কারণে জীবনও হয়ে ওঠে সহজ ও সরল। তাই আজ আপনাদের জানাবো সকালে ঘুম থেকে ওঠার সহজ কিছু উপায়।

এই সমস্যা থেকে সমাধান পেতে প্রথমেই যে অভ্যাসটি আপনার করতে হবে তাহলো তাড়াতাড়ি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস। রাতে দেরি করে ঘুমাতে গেলে সকাল পর্যন্ত ঘুমের পরিমাণ কম হয়। যার কারণে অ্যালার্ম শোনার পরও সকালে আপনি ঘুম থেকে উঠতে দেরি করেন।

চেষ্টা করুন ঘড়ির অ্যালার্ম বিছানা থেকে দূরে রাখতে। দূরত্বটা এমন হবে যাতে অ্যালার্ম বন্ধ করতে আপনাকে একটু হাঁটতে হয়। হাঁটার কারণে আপনার ঘুমের ঘোর অনেক সহজেই কেটে যাবে।

এতেও যদি ঘুমের ঘোর না কাটে তবে বারান্দায় বা জানালার সামনে চলে যান নীল আকাশ দেখতে। নীল আকাশের সৌন্দর্যে বিমোহিত হয়ে আপনার ঘুমের ঘোর কখন যে কেটে যাবে আপনি তা বুঝতেই পারবেন না।

আকাশের সৌন্দর্যের পাশাপাশি ভোরের মিষ্টি ও সতেজ বাতাসও আপনার ঘুম ভাঙানোর কাজে লেগে যাবে। এছাড়া এ সময় পছন্দের কোনো গান মৃদু আওয়াজে বাজিয়ে শুনতে পারেন। এতেও আলস্য কেটে গিয়ে সকালে তাড়াতাড়ি আপনার ঘুম ভাঙাতে সাহায্য করবে।