• সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৪

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি ফজিলাতুন নেছা মুজিব দৃঢ়চেতা-বলিষ্ঠ চরিত্রের অধিকারী ছিলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ বাংলাদেশে সহায়তা অব্যাহত রাখবে চীন: ওয়াং ই চীনে ৯৯ শতাংশ পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে বাংলাদেশ মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছি মায়ের দুধ শিশুর সর্বোত্তম খাবার: রাষ্ট্রপতি শেখ কামাল ছিলেন ক্রীড়া ও সংস্কৃতিমনা সুকুমার মনোবৃত্তির মানুষ

অতিরিক্ত দামে নিত্যপণ্য বিক্রির দায়ে দশমিনায় ৪ দোকানীর জড়িমানা

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৬ মে ২০২০  

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ 

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার রনগোপালদী বাজারে ধার্য্যকৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রি করায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ দোকানীকে ৩৩ হাজার টাকা জড়িমানা করেছে সোমবার বিকালে। রনগোপালদী বাজারের হাওলাদার স্টোরকে ১০ হাজার টাকা, ‘ভাই ভাই ট্রেডার্স’কে ১০ হাজার টাকা, ‘তুষার ট্রেডার্স’কে ১০ হাজার ও ‘শান্ত ট্রেডার্স’কে ৩ হাজার টাকা জড়িমানা করেন। মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি করায়, দৃশ্যমান স্থানে পণ্যের মূল্য তালিকা সঠিকভাবে প্রদর্শন না করায় ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি করায় ৪ দোকানীকে ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা করেন। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মানস চন্দ্র দাস ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। মেয়াদোত্তীর্ণ ও ভেজাল পণ্য বিক্রি করার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর বিভিন্ন ধারায় জরিমানা করা হয়। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মানস চন্দ্র দাস বলেন, সকল ব্যবসায়ীকে দৃশ্যমান স্থানে পণ্যের মূল্য তালিকা সঠিকভাবে প্রদর্শন করতে, কারসাজি করে পণ্যের দাম বৃদ্ধি না করতে, পাইকারি ক্রয়ের ভাউচার সংরক্ষণ ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য অনুরোধ করা হয়। প্রতিটি নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের যথেষ্ট মজুদ ও সরবরাহ আছে বলেও জানান। এছাড়া জনস্বার্থে প্রশাসনের এ বাজার মনিটরিং বরাবরের ন্যায় অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়। থানা পুলিশের একটি টিম এ কাজে সার্বিক সহযোগিতা করেন।