• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৯

  • || ০৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
এলাকাভিত্তিক লোডশেডিংয়ের সূচি তৈরির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল ডিভাইস আমরা রপ্তানি করব : প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ করা হবে: প্রধানমন্ত্রী বঞ্চিত মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে দেশে ফিরেছিলাম: প্রধানমন্ত্রী ইনকিউবেটরের হাত ধরে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করবেন না: প্রধানমন্ত্রী অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার: প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে মানুষ স্বতস্ফূর্তভাবে ভোট দিতে পেরেছে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ৪৭, খাসি ‌১৮ টাকা নির্ধারণ কাউকে যেন কষ্ট না পেতে হয়: প্রধানমন্ত্রী ভিভিআইপিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন: পিজিআরকে রাষ্ট্রপতি জাতির পিতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা, মোনাজাত পদ্মা সেতুতে সন্তানদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি ‘পদ্মা সেতু ও রপ্তানি আয় জাতির সক্ষমতা প্রমাণ করছে’ টোল দিয়ে পদ্মা সেতুতে উঠলেন প্রধানমন্ত্রী, গাড়ি থামিয়ে উপভোগ করলেন সৌন্দর্য পদ্মা সেতু নির্মাণের সব কৃতিত্ব জনগণের: প্রধানমন্ত্রী সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিকতায় দেশকে এগিয়ে নিতে পেরেছি পারিবারিক আদালত আইনের খসড়া অনুমোদন ঈদের আগে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলছে না

খারাপ পরিণতির আরও বাকি আছে বিএনপির

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৬ মে ২০২২  

বিএনপির সকলরকম বিপর্যয়ের পেছনে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দায়ী বলে মনে করেন দলের বহিষ্কৃত নেতা অবসরপ্রাপ্ত মেজর আখতারুজ্জামান। তিনি নিজেকে এখনও দলের প্রতি অনুগত দাবি করে একান্ত সাক্ষাতকারে বলেছেন, বিএনপি দল হিসাবে এখন আর চলছে না।

বিএনপি থেকে দুই যুগে পাঁচবার বহিষ্কার হয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত মেজর আখতারুজ্জামান। নিজ দল ক্ষমতায় থাকার সময়েই প্রথম বহিষ্কার হন। যদিও বারবারই দলে ফিরে এসেছেন। সবশেষ ২০২১-এ আবারও বহিষ্কার হন মেজর আখতার।

বিএনপির সাবেক নেতা মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান বলেন, “একদিন নেতা-কর্মীরা এসে জুতাপেটা করবে। জুতাপেটা কেন বললাম, ব্যস।”

বিএনপির বতর্মান অবস্থা নিয়ে হতাশ আখতারুজ্জামান।

আখতারুজ্জামান বলেন, “এই দলটা আর চলছে না। এই দলটার আমরা কিছু ব্রকারি করছি।”

তিনি বলেন, দলের খারাপ পরিণতির আরও বাকি আছে। কিন্তু কেন বিএনপির এই অবস্থা, সেই প্রশ্নে সরাসরি দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে দুষলেন তিনি।

মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান বলেন, “ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান যে হোক সবই একই কথা। ঘুরিয়ে ফিরিয়ে কথা বলতে হবে কেন। এর জন্য তারেক রহমানই দায়ী। আর কে দায়ী? একমাত্র তারেক রহমানই দায়ী। সেই তার সর্বনাশ করে বেড়াচ্ছে। এগুলো বললে তিনি আবার বহিষ্কার করে দেবেন।”

এতোবার বহিষ্কার এবং হতাশার মাঝেও আবারও জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি থেকেই মনোয়ন নিয়ে নির্বাচনে লড়ার আশা আখতারুজ্জামানের।