• সোমবার   ১৬ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি খাদ্য সাশ্রয় করুন: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাধীনভাবে সরকারের সমালোচনা করতে পারে: প্রধানমন্ত্রী ‌ঢাকায় বসে সমালোচনা না করে গ্রামে ঘুরে আসুন বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছে ফেলতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্টকে রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন শেখ হাসিনাকে স্পেনের সরকার প্রধানের শুভেচ্ছা পি কে হালদার গ্রেফতার নানামুখী ষড়যন্ত্র হচ্ছে, সতর্ক থাকতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে সমর্থন দেওয়ার প্রত্যয় এডিবির ভাইস প্রেসিডেন্টের আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের চার বছর পূর্তি আজ নারী খেলোয়াড়দের আরও সুযোগ দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ‘খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চা একটি জাতির জন্য অপরিহার্য’ ফ্ল্যাটে বাস করে শিশুরা ফার্মের মুরগির মতো হয়ে যাচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার দেয়া হচ্ছে ৮৫ ক্রীড়া ব্যক্তিত্বকে রাষ্ট্রপতির সাজেক সফর স্থগিত একনেকে ৫ হাজার ৮২৫ কোটি টাকার ১১ প্রকল্প অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্র থেকে বর্ধিত বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি করতে প্রস্তুত বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

যে কারণে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে পছন্দের স্মার্টফোনে!

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২২  

ফোনে বিস্ফোরণ! কথাটি অনেকের পরিচিত নাও হতে পারে, তবে বিষয়টি ভয়ানক। হঠাৎ করেই জ্বলে উঠতে পারে পকেটে থাকা আপনার পছন্দের ফোনটি। আর দিনে দিনে এমন ঘটনা বাড়ছে।  

সম্প্রতি ভারতে ডিব্রুগড় থেকে বিমানে দিল্লি যাওয়ার পথে হঠাৎ জ্বলে ওঠে একটি ফোন। অগ্নি নির্বাপক যন্ত্রের সাহায্যে দ্রুতই পরিস্থিতি আয়ত্তে আনা হলেও এটি কিন্তু চিন্তার কারণ।

যে কারণে ফোনে বিস্ফোরণ ঘটে-
ফোন বিস্ফোরণের অন্যতম প্রধান কারণ ব্যাটারি। আর ব্যাটারি বিস্ফোরণের প্রথম কারণ হল, ফোনের আসল চার্জার ব্যবহার না করা। নির্দিষ্ট কয়েকটি ফোনের সঙ্গে চার্জার না দেওয়া হলেও বেশিরভাগ ফোনেই কোম্পানির পক্ষ থেকে চার্জার দেওয়া হয়। দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে অনেকক্ষেত্রে তা নষ্ট হয়ে যায়। সেখানেই সমস্যার শুরু। নতুন করে চার্জার কেনার সময়ে অধিকাংশই চেষ্টা করেন খরচ বাঁচাতে। ফলে কম দামে চার্জার কেনেন। যা ফোনের জন্য অত্যন্ত খারাপ। দ্বিতীয়বার কেনার প্রয়োজন হলে অবশ্যই কোম্পানির অর্থাৎ অফিশিয়াল চার্জারই কেনা উচিত।

ব্যাটারি নষ্টের আরেকটি কারণ অতিরিক্ত চার্জ দেওয়া। বেশিরভাগ মানুষই সারাদিন ফোন ব্যবহার করেন এবং সারারাত ফোন চার্জে বসিয়ে রাখেন। যা একেবারই উচিত নয়। ফোনের ব্যাটারি ১০০ শতাংশ চার্জ হয়ে গেলেই তা চার্জার থেকে খুলে রাখা বাধ্যতামূলক।

তরল পদার্থ থেকে ফোনের ব্যটারির ক্ষতি হতে পারে। তাই ফোনে কোনও ভাবে পানি বা তরল পদার্থ ঢুকে গেলে দ্রুত সার্ভিস সেন্টারে নিতে হবে।

মাঝে মধ্যেই পড়ে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয় শখের স্মার্টফোনটি। কখনও ভেঙে যায় স্ক্রিন। সেই অবস্থাতেও ফোন ব্যবহার করেন অনেকে। যা একেবারেই ঠিক নয়। তাই ফোনের বাহ্যিক কোনও ক্ষতি হলেও সঙ্গে সঙ্গে সার্ভিস সেন্টারে যাওয়া আবশ্যিক।

ফোনের ব্যাটারি খারাপ হওয়ার আরেকটি কারণ হল সার্ভিস সেন্টার। দেখে শুনে বুঝে ভালো সার্ভিস সেন্টার থেকে ফোনের কাজ করানো উচিত।

ফোনের ব্যাটারি ঠিক রাখতে মাথায় রাখতেই হবে উপরিউক্ত বিষয়গুলো। তবে কোনও কোনও ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে একেবারে সদ্য কেনা ফোনও বিস্ফোরণ হয়েছে। সেই ঘটনা ব্যাতিক্রম।