• বৃহস্পতিবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
প্রশিক্ষিত সামরিক বাহিনী গঠনে বিভিন্ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি বাংলাদেশ আর পিছিয়ে যাবেনা, এগিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশ সদাপ্রস্তুত পার্বত্য শান্তিচুক্তির ফলে দীর্ঘদিনের সংঘাতের অবসান ঘটে পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিশ্বের ইতিহাসে বিরল ঘটনা: প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ২৪ বছরে পার্বত্য শান্তি চুক্তি আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না: প্রধানমন্ত্রী গাড়ি ভাঙচুর-আগুন দিলেই ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধন ও জয়িতা টাওয়ারের ভিত্তি স্থাপন সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাবি: প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে অব্যাহত সমর্থন দেবে ওমিক্রন: করণীয় নির্ধারণে বৈঠকে ১৮ মন্ত্রণালয় রাজস্ব বোর্ডকে সেবাধর্মী, জনবান্ধব ও করদাতাবান্ধব করেছে সরকার ষড়যন্ত্র থাকবে, তবু দেশ এগিয়ে যাবে: প্রধানমন্ত্রী বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে ২৭ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ প্রস্তাব পেয়েছি বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিজনেস সামিট বিনিয়োগ বাজার তৈরি করবে: প্রধানমন্ত্রী তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউপিতে ভোটগ্রহণ শুরু

ছয় সময়ে পানি পান সবচেয়ে বেশি উপকারী

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর ২০২১  

সুস্থতা সবারই কাম্য। তবে সুস্থ থাকার জন্য পুষ্টিকর খাবারের পাশাপয়াশি পর্যাপ্ত পানি পান করা জরুরি। পর্যাপ্ত পানি পান না করলে অসুস্থ হয়ে পড়ার ঝুঁকি বাড়ে। তাই শরীর সুস্থ রাখতে সঠিক পরিমাণে পানি পানের বিকল্প নেই। তবে সারাদিনের নানান কাজের ব্যস্ততার কারণে দেখা যায় ঠিকভাবে পানি পান করা হয় না। ফলে দিন শেষে শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে। এছাড়াও শরীরের নানাবিধ সমস্যা দেখা দেয়। 

আয়ুর্বেদ চিকিৎসা অনুযায়ী, শরীর সুস্থ ও স্বাভাবিক রাখতে দিনের নির্দিষ্ট সময়ে সঠিক পরিমাণে পানি পান করা জরুরি। যেমন-

>> ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে দুই গ্লাস পানি পান করুন। এতে শরীরের সব অঙ্গপ্রতঙ্গ সক্রিয় হয়ে উঠবে। সেই সঙ্গে সকালের নাস্তার আগে শরীর জেগে উঠবে। খালি পেটে পানি পানে ভালো উপকারিতা পাওয়া যায়।

>> দুপুরের খাবার কিংবা রাতের খাবারের অন্তত আধা ঘন্টা আগে পানি পান করা উচিত। এতে পেট ভরা অনুভূত হবে। তখন খাবারও কম পরিমাণে খাওয়া হবে। 

>> গোসলের আগে এক গ্লাস পানি খেতে পারেন। এতে উচ্চ রক্তচাপ স্বাভাবিক থাকবে। 

>> দুপুর ও রাতের খাবারের মধ্যে সাধারণত ৬ থেকে ৭ ঘণ্টার ব্যবধান থাকে। এ সময়ে পানি পান করতে ভুলবেন না। যখনই পিপাসা অনুভব করবেন তখনই পানি পান করবেন।

>> দুপুরের মতো রাতের খাবারেরও অন্তত আধা ঘন্টা আগে পানি পান করা উচিত। এতে হজমশক্তি ভালো হবে। পুষ্টি বাড়াতে পানিতে এক টুকরা লেবু কেটে দিতে পারেন। 

>> ঘুমানোর আগে এক গ্লাস হালকা গরম পানি পান করতে পারেন। এতে ঘুম, হজমশক্তি ভালো হবে। সেই সঙ্গে স্ট্রোক, হৃদরোগের ঝুঁকিও কমবে।