• বুধবার ২৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

  • || ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
বাংলাদেশ বিশ্ব শান্তি রক্ষায় এক অনন্য নাম : রাষ্ট্রপতি রাত ২টা পর্যন্ত নিজেই দুর্যোগ মনিটর করেছেন প্রধানমন্ত্রী রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ দ্রুত মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় যাবেন শেখ হাসিনা ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ার অগ্রযাত্রায় মার্কিন ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক ডকুমেন্টারি ‘কলকাতায় মুজিব’ অবলোকন ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমাল : ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়: প্রধানমন্ত্রী সকালেই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে রেমাল, আছড়ে পড়বে মধ্যরাতে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : পায়রা ও মোংলা বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী

খুলনায় ২৪টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০২৩  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১৩ নভেম্বর খুলনায় ২২টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন এবং ২টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। খুলনা জেলা প্রশাসন জানায়, এই ২৪টি প্রকল্পের কাগজপত্র ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

খুলনার বিভাগীয় কমিশনার খন্দকার ইয়াসির আরেফিন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৩ নভেম্বর খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে আয়োজিত মহাসমাবেশ থেকে ৩৯১ কোটি ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে ২২টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন এবং অপর ২টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

২২টি প্রকল্পের মধ্যে ৮টি প্রকল্প বাস্তবায়িত করেছে গণপূর্ত বিভাগ। এগুলো হলো—জেনোসাইড অ্যান্ড টর্চার আর্কাইভ ও জাদুঘর ভবন, সিভিল সার্জন কার্যালয় ও আবাসিক ভবন, পাইকগাছা উপজেলার কারিগরি প্রশিক্ষণ সেন্টার, খুলনা অ্যাপরেন্টিস ট্রেনিং অফিস, খুলনা বিএসটিআই আঞ্চলিক কার্যালয়, নারী হোস্টেল ভবন, পাইকগাছা উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রি অফিস ভবন সংস্কার ও আধুনিকায়ন এবং দৌলতপুরে কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের ছাত্র হোস্টেল নির্মাণ।

বাকি ১০টি প্রকল্প বাস্তবায়িত করেছে শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগ (ইইডি)। সেগুলো হচ্ছে—ডুমুরিয়া টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বয়রা মাধ্যমিক স্কুল, খুলনা কলেজিয়েট স্কুল, সরকারি এলবিকে ডিগ্রি ওমেন্স কলেজ, সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ, চালনা বাজার সরকারি গার্লস হাইস্কুল, তালিমুল মিল্লাত রহমতিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, নজরুল নগর মাধ্যমিক স্কুল, আরআরএফ মাধ্যমিক স্কুল এবং আড়ংঘাটা মাধ্যমিক স্কুল।

এছাড়াও  প্রধানমন্ত্রী যে দুটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন তা হলো—স্যানিটারি ল্যান্ডফিল ও দীঘলিয়া টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ নির্মাণ। এগুলো বাস্তবায়ন করবে যথাক্রমে কেসিসি ও ইইডি। সূত্র: বাসস।