• শুক্রবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৯

  • || ০৪ রজব ১৪৪৪

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
কাউকে সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেব না: প্রধানমন্ত্রী আর্থসামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল: প্রধানমন্ত্রী বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে কাস্টমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে একাত্তরে গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমার ব্যর্থতা থাকলে খুঁজে বের করে দিন: প্রধানমন্ত্রী পরবর্তী লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিটি শিক্ষার্থী যেন স্কাউট প্রশিক্ষণ পায়: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত, সন্ত্রাস ও ক্ষমতা দখলকে পেছনে ফেলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে মাইকেল মধুসূদন দত্ত বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র ২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় হবে ১২ হাজার ডলার: প্রধানমন্ত্রী টেক্কা দিয়ে বাংলাদেশের এগোনো অনেকের পছন্দ না: প্রধানমন্ত্রী জনগণের পয়সায় সুযোগ-সুবিধা, তাদের সেবা করুন অপ্রয়োজনীয় ব্যয় কমিয়ে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর ২৫ নির্দেশনা জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করতে হবে: ডিসিদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর শাসনামল নিয়ে গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী ৬৯’র গণঅভ্যুত্থানে শহীদের রক্ত বৃথা যায়নি: রাষ্ট্রপতি অপশাসনের বিরুদ্ধে ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান অনুপ্রেরণার: প্রধানমন্ত্রী বৃহত্তর বৈশ্বিক সহায়তার ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ: প্রধানমন্ত্রী

বিদেশে উচ্চশিক্ষার জন্য ১০টি দেশ বিবেচনায় রাখতে পারেন

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২৩  

উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে যাওয়ার স্বপ্ন প্রতিটি শিক্ষার্থীরই থাকে। কিন্তু অতিরিক্ত টিউশন ফি হওয়ার কারণে অনেকেই যেতে পারেন না। তবে কিছু কিছু দেশ আছে যেখানে আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রীদের বিনা খরচে লেখাপড়ার সুযোগ দেওয়া হয়। তাই উচ্চ শিক্ষার জন্য বিদেশে যাওয়ার স্বপ্ন থাকলে আপনিও এই ১০টি দেশ বিবেচনায় রাখতে পারেন। যেখানে আপনি ন্যূনতম খরচে উচ্চশিক্ষার জন্য যেতে পারেন। 

জার্মানি: জার্মানি এখন বিনা খরচে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের দেশের তালিকার শীর্ষে রয়েছে। দেশটির প্রায় সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো টিউশন ফি লাগে না। ছাত্রদের শুধু প্রশাসনিক ফি দিতে হয়, যা আমাদের নিজের দেশে নেয়া চার্জের তুলনায় খুবই কম।

নরওয়ে: নরওয়ে এমন একটি দেশ যেখানে আপনাকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর বা ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের জন্য একটি পয়সাও খরচ করতে হবে না। কারণ সরকার দেশের করের টাকা দিয়ে শিক্ষার জন্য অর্থায়ন করে। নরওয়ের বেশির ভাগ শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় নরওয়েজীয় ভাষায় শিক্ষা দিয়ে থাকে, যার কারণে আপনাকে ভাষা শিখতে হবে এবং একটি দক্ষতা পরীক্ষায়ও পাস করতে হবে। 

সুইডেন: সুইডিশ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কোনো টিউশন ফি ছাড়াই শিক্ষার সুযোগ দিয়ে থাকে। সুইডিশ ও অসুইডিশ উভয় জাতীয়তার শিক্ষার্থীদের জন্যই এই সুযোগ দেয়া হয়। আপনি যদি কোনো সুইডিশ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেন তবে আপনার গবেষণা কাজের জন্য আপনাকে অর্থ সহায়তা দেয়া হয়। সুইডেনের আন্তর্জাতিক ছাত্রদের জন্য কিছু জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে করোলিনস্কা ইনস্টিটিউট, উপসালা বিশ্ববিদ্যালয় ও স্টকহোম বিশ্ববিদ্যালয়।

অস্ট্রিয়া: অস্ট্রিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার খরচ অনেক কম। আন্তর্জাতিক ছাত্রদের শুধু তাদের তালিকাভুক্তির সময় একটি নামমাত্র ফি দিতে হবে। অস্ট্রিয়া অনেক উন্নত বিষয়ে ডিগ্রি প্রোগ্রামের সুযোগ দেয়। আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য অস্ট্রিয়ার শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় হলো ভিয়েনা বিশ্ববিদ্যালয় ও ইনসব্রুক বিশ্ববিদ্যালয়।

ফিনল্যান্ড: ফিনল্যান্ডে স্নাতকোত্তর ও ডক্টরাল স্তরে উচ্চশিক্ষা বিনা মূল্যে। ফিনল্যান্ড ডিজাইনিং, আর্কিটেকচার, কমিউনিকেশন ইত্যাদি বিষয়ে কোর্স অফার করার জন্য জনপ্রিয়। এই দেশে কিছু দুর্দান্ত পলিটেকনিক কলেজ রয়েছে, যা ব্যবহারিকভিত্তিক শিক্ষা দিয়ে থাকে।

চেক প্রজাতন্ত্র: চেক প্রজাতন্ত্রে ৩৭ হাজারের বেশি আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করে। এখানকার শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো মেডিসিন, ইঞ্জিনিয়ারিং ও বিজ্ঞান বিষয়ে পড়ার সুযোগ দিয়ে থাকে। শিক্ষার বেশির ভাগই চেক ভাষায় দেয়া হয়। তবে অনেক শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজিতেও পড়ানো হয়।

ফ্রান্স: নৈসর্গিক সৌন্দর্য এবং শিক্ষা উভয় দিক থেকেই ফ্রান্স একটি অত্যন্ত সুন্দর দেশ। শিক্ষাব্যবস্থাও অনেক উন্নত। আন্তর্জাতিক ছাত্রদের জন্য এখানে টিউশন ফি প্রায় বিনা মূল্যে। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যে কেউ বিভিন্ন সৃজনশীল কোর্স বেছে নিতে পারেন। একটি জরিপ অনুসারে, ফ্রান্সে ৩৯টি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে, যা বিশ্বব্যাপী শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের শিক্ষা দিয়ে থাকে। TOEFL স্কোর ফ্রান্সে ভর্তির জন্য বৈধ।

বেলজিয়াম: বেলজিয়াম উন্নত মানসম্পন্ন শিক্ষাদান করে, যা শিক্ষার্থীকে ব্যবহারিক ও তাত্ত্বিক উভয় দিক থেকেই পারদর্শী করে তোলে। টিউশন ফিও খুব সাশ্রয়ী এবং কেউ তাদের কোর্স শেষ করার পরে একটি ভালো প্লেসমেন্টও পেতে পারে। 

গ্রিস: গ্রিসে জীবনযাত্রার সর্বনিম্ন খরচ। এই দেশের শীর্ষ কলেজগুলোয় স্নাতকোত্তর ও ডক্টরাল ডিগ্রির জন্য কেউ চাইলে যেতে পারেন। এখানে দেয়া বেশির ভাগ কোর্স ইংরেজি ভাষায়। প্লেটো ও অ্যারিস্টটলের মতো দার্শনিকদের নিয়ে এই দেশের একটি সমৃদ্ধ ইতিহাস রয়েছে, যারা গ্রিসে জন্মগ্রহণ করেছেন এবং প্রাচীন শিক্ষাব্যবস্থায় ব্যাপক অবদান রেখেছেন। গ্রিসে আধুনিককালের উচ্চশিক্ষাও প্রাচীন যুগের সঙ্গে সমান।

স্পেন: স্পেনে আপনি খুব কম খরচে অধ্যয়ন করতে পারেন। স্নাতক থেকে ডক্টরাল স্তর পর্যন্ত বিভিন্ন কোর্স করতে পারেন। শিক্ষার উচ্চমান বেশ উন্নত। আন্তর্জাতিক ছাত্রদের জন্য স্পেনের কিছু শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে ইউনিভার্সিটি অব বার্সেলোনা, ইউনিভার্সিটি অব সেভিল ও ইউনিভার্সিটি অব স্পেন।

শেষ কথা, বিনা খরচে পড়ার জন্য বৃত্তি পেতে হবে। এর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কলারশিপ প্রক্রিয়া সম্পর্কে ভালোভাবে জানা দরকার।