• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান লাইলাতুল কদর মানবজাতির অত্যন্ত বরকত ও পুণ্যময় রজনি শবে কদর রজনিতে দেশ ও মুসলিম জাহানের কল্যাণ কামনা প্রধানমন্ত্রীর সেবা দিলে ভবিষ্যতে ভোট নিয়ে চিন্তা থাকবে না জনপ্রতিনিধিদের জনসেবায় মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে পারলে ভোটের চিন্তা থাকবে না দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানিয়ে প্রেসিডেন্টকে শেখ হাসিনার চিঠি রূপপুরে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের জন্য আহ্বান রূপকল্প বাস্তবায়নে অটিজমের শিকার ব্যক্তিদেরও সম্পৃক্ত করতে হবে অটিজম ব্যক্তিদের পুনর্বাসনে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসতে হবে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে এডিবির আরো সহায়তা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

কিডনি ফেইলিওর হলে আগে টের পাবেন যেসব লক্ষণ

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

ইদানীং দেখা যাচ্ছে হঠাৎ করেই কিডনির সমস্যা তৈরি হচ্ছে। চোখেমুখে সুস্থতা দেখা গেলেও কিডনির অবস্থা নাজেহাল। তখন কিছু লক্ষণ দেখে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার কিডনির অবস্থা আসলে খুব একটা ভালো পর্যায়ে নেই। শরীরে কিডনির প্রধান কাজ হলো পরিশোধন করা। কিন্তু শরীরের কোনও রোগের কারণে, যখন উভয় কিডনি তাদের স্বাভাবিক কাজ করতে অক্ষম হয়, তখন সেই অবস্থায় কিডনি ব্যর্থ হয়।

রক্তের মধ্যে ক্রিয়েটিনিন এবং ইউরিয়া পরিমাণ পরীক্ষা করে কিডনি ফাংশন শনাক্ত করা যেতে পারে। যদিও কিডনি ধারণক্ষমতা অন্যান্য শরীরের অংশের তুলনায় বেশি তাই এর অল্প ক্ষতি হলেও রক্ত পরিকার মাধ্যমে ধরা পড়ে না। কিন্তু যখন কিডনিগুলিতে ৫০ শতাংশেরও বেশি রোগের কারণ দেখা দেয়, তখন রক্ত পরীক্ষায় রক্তে ইউরিয়া এবং ক্রিয়েটিনিন বৃদ্ধি পায়, যা কিডনি ক্ষতির লক্ষণগুলোর মধ্যে অন্যতম।

কিডনি ফেইলিওর-এর লক্ষণ-

১. আপনি যদি প্রায় ক্রমাগত বমি করেন, আর বমির একটি ভাব সবসময় থাকে তাহলে ধরে নিতে পারেন কিডনির কোনো সমস্যা রয়েছে। এবং তা খারাপের দিকে।

২. ক্লান্তি এবং দুর্বলতা অনুভব করা কিডনি দুর্বলতার সংকেত।

৩. আপনার চোখে ঘুম নেই কিন্তু কারণ খুঁজে পাচ্ছেন না তখন এটি দুশ্চিন্তার কারণ।
৪. প্রধান যে সমস্যা দেখে আপনি ধারণা করবেন তা হলো, প্রস্রাবের পরিমাণ কমে যাওয়া। এটি কিডনির ক্ষতির লক্ষণ।

৫. ব্রেন ঠিক ভাবে কাজ না করা বা কোন বিষয় বুঝতে সমস্যা হওয়া কিডনির ক্ষতির লক্ষণ হতে পারে।

৬. পেশীর মধ্যে টান কিডনি ক্ষতির একটি ইঙ্গিত।

৭. পা এবং গোড়ালিতে ফুসকুড়ি হওয়া কিডনি ব্যর্থতার একটি লক্ষণ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পানি কম খেলে কিডনির সমস্যা দেখা দিতে পারে। আবার খুব বেশি লবণ খাওয়ার ফলে কিডনির সমস্যা হয়।
যদি আপনার উচ্চ রক্তচাপ থাকে এবং আপনি যদি চিকিৎসার ক্ষেত্রে আগ্রহী না হন তবে তার সরাসরি প্রভাব আপনার কিডনিতে পড়তে পারে। ব্যথার ওষুধ নিয়মিত গ্রহণ করলে কিডনির ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়তে পারে।