• শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

  • || ১৯ শা'বান ১৪৪৫

আজকের পটুয়াখালী
ব্রেকিং:
নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে

প্রথমবার ৫০ শতাংশের নিচে খ্রিস্টান জনসংখ্যা, দ্রুত বাড়ছে মুসলিম!

আজকের পটুয়াখালী

প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০২২  

প্রথমবারের মতো যুক্তরাজ্যের ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে ৫০ শতাংশের নিচে খ্রিস্টান জনসংখ্যা নেমে এসেছে। একইসঙ্গে দুটি রাজ্যে দ্রুত হারে মুসলিম জনসংখ্যা বাড়ছে। মঙ্গলবার প্রকাশিত আদমশুমারি থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

জাতীয় পরিসংখ্যান দফতর জানায়, ২০২১ সালে ১০ বছর অন্তর আদমশুমারি করা হয়। সেই শুমারিতে দেখা যায়, ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে দ্রুত মুসলিমদের সংখ্যা বাড়ছে। তবে খ্রিস্টান ধর্মের পরই ‘ধর্ম নেই’ অনুসারীর জনসংখ্যা বেশি রয়েছে।

ধর্ম নিরপেক্ষতার যুগে ইয়র্কের ধর্মযাজক স্টিফেন কটরেল জানান, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে খ্রিস্টানের সংখ্যা কমার ব্যাপারে বড় আশ্চর্যের কিছু নেই। কিন্তু তিনি বলেন, জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি এবং যুদ্ধের মুখোমুখি ইউরোপে এখনো আধ্যাত্মিক উপস্থিতি প্রয়োজন।

এ ধর্মযাজক বলেন, আমরা খাদ্য ও উষ্ণতাসহ বিভিন্ন মাধ্যমে তাদের কাছে আসব। এই ক্রিসমাসে লাখ লাখ মানুষ আমাদের সেবার জন্য আসবেন। এই সময়ে আমরা আমাদের অবস্থান ছাড়িয়েও নজর দেব। আমরা বৈশ্বিক বিশ্বাসের অংশ হিসেবে সবাইকে স্মরণ করিয়ে দেব, বিশ্বের শান্তি ও স্থিতিশীল ভবিষ্যতের বৃহৎ আশার বিষয়টিকে স্মরণ করব।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় পরিসংখ্যা দফতরের তথ্যানুযায়ী, ২০০১ সালে যুক্তরাজ্যের আদমশুমারিতে ধর্মের প্রশ্নের বিষয়টি যুক্ত করা হয়। এটি ঐচ্ছিকভাবে রাখা হয়েছিল। তবে ৯৪ শতাংশ মানুষ ধর্মে প্রশ্নে সাড়া দেন। 

প্রায় ২৭.৫ মিলিয়ন বা ৪৬.২ শতাংশ ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের বাসিন্দারা নিজেদের খ্রিস্টান বলে পরিচয় দেন। তবে ২০১১ সাল থেকে এটি আরো ১৩.১ শতাংশে নেমে এসেছে।

এদিকে, ৩৭.২ শতাংশ বা ২২.২ মিলিয়ন ধর্মহীন মানুষ রয়েছেন। তাদের অনুসামী ১২ পয়েন্ট বেড়েছে। আর জনসংখ্যার ৩.৯ মিলিয়ন বা ৬.৫ শতাংশ হচ্ছে মুসলিম। ২০১১ সালে মুসলিম জনসংখ্যা ছিল ৪.৯ শতাংশ।

এরপর ১০ লাখ হিন্দু ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে রয়েছে এবং শিখ রয়েছে পাঁচ লাখ ২৪ হাজার। অন্যদিকে, ইহুদিদের ছাড়িয়ে গেছে বৌদ্ধরা। যুক্তরাজ্যের দুটি রাজ্যে দুই লাখ ৭১ হাজার ইহুদি আছে আর বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারী আছে ২ লাখ ৭৩ হাজার।

গত বছরের আদমশুমারিতে টুকরো টুকরো থেকে মূল বিভাগগুলি প্রকাশ করছে জাতীয় পরিসংখ্যান সংস্থা। সর্বশেষটি ধর্ম ও জাতিগত পরিচয় নিয়ে কাজ করেছে সংস্থাটি। তবে স্কটল্যান্ড ও উত্তর আয়ারল্যান্ডের তথ্য আলাদাভাবে প্রচার করেছে সেটি।